খবর ২৪ ঘন্টা

ইউরোপে রেকর্ড জরিমানা গুনতে হবে গুগলকেঃ বিস্তারিত জানুন

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

ওয়েব ডেস্কঃ   সার্চ ফলাফলে ক্ষমতা অপব্যবহার করে ‘নিজের পণ্য’ আগে দেখানোর অভিযোগে মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগলকে ২৭০ কোটি ডলার জরিমানা করেছে ইউরোপীয় কমিশন। ওই কাজের মাধ্যমে গুগল বাজারে অন্যায়ভাবে প্রভাব বিস্তার করছে বলেও মনে করে ইউরোপীয় কমিশন। ইউরোপীয় কমিশন দীর্ঘদিন গুগলের এই কর্মকাণ্ডের ওপর গবেষণা করে বলছে ইউরোপের প্রতিযোগিতামূলক বাজার ব্যবস্থায় গুগলের এই কর্মকাণ্ড অবৈধ। গুগলের বিরুদ্ধে কশিনের অভিযোগ, জনপ্রিয় এই সার্চ ইঞ্জিনটি গ্রাহকের সার্চ ফলাফলে নিজের কিংবা স্পন্সর পণ্যগুলো অতিরিক্ত গুরুত্ব দিয়ে আগে তুলে ধরে। এতে গ্রাহকরা বিভ্রান্তিতে পড়েন।ইউরোপীয় কমিশনের কম্পিটিশন কমিশনার মারগ্রেথ ভেস্তাগার বলেন, ‘গুগল যেটা করছে তা কোনোভাবেই কমিশনের নীতিসিদ্ধ নয়। গুগলের এই কাজের কারণে বাজারে বিরূপ প্রভাব পড়ছে।’

ইউরোপীয় কমিশনের কম্পিটিশন কমিশনার মারগ্রেথ ভেস্তাগার-বিবিসি

মঙ্গলবার কমিশনের রায়ে তিনি বলেন, ‘সব বাজারে প্রতিযোগীদের মধ্যে মেধার ভিত্তিতে প্রতিযোগিতা করার ও উদ্ভাবনের সুযোগ থাকে। গুগল সেই সুযোগ নষ্ট করেছে। পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানটি ইউরোপের ভোক্তাদের প্রতিযোগিতামূলক বাজারের সুবিধা থেকে বঞ্চিত করেছে।’ মূলত: এ কারণেই গুগলকে ওই জরিমানা করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বাজারে বিশৃঙ্খলতা তৈরির অভিযোগে ইউরোপীয় কমিশনের জরিমানার অংক এটাই সর্বোচ্চ। গুগল কমিশনের এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার কথা ভাবছে বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। ইউরোপীয় কমিশনের রায়ে বলা হয়, ৯০ দিনের মধ্যে গুগল তাদের নীতিমালা পরিবর্তন না করলে অর্থাৎ সার্চ ফলাফলে নিজের পণ্য আগে দেখানো বন্ধ না করলে আরও জরিমানা গুণতে হবে। এই রায়ের বিষয়ে গুগলের এক মুখপাত্র বলেন, ‘বিজ্ঞাপনদাতারা তাদের পণ্যের প্রচার চান। অন্যদের আগে ভোক্তার কাছে পৌঁছুতে চান। আর ভোক্তারা সহজেই খুঁজে পেতে চান তাদের পছন্দের পণ্য। গুগল এই দুই চাওয়ার মধ্যে সমন্বয় করে; যা উভয়ের জন্যই ভালো।’ ইউরোপীয় কমিশনের রায়ের প্রতি গুগল শ্রদ্ধাশীল বলে মন্তব্য করে ওই মুখপাত্র বলেন, ‘আপিল করার লক্ষ্যে আমরা রায়টি আগে বিশ্লেষণ করব।’
উল্লেখ্য, কোন ক্রেতা যখন গুগলে পণ্য সার্চ করেন তখন ‘স্পন্সরড’ লেখা কিছু পণ্য গুগল আগে প্রদর্শন করে। ওইসব পণ্য মূলত তাদের, যারা গুগলকে এভাবে নিজের পণ্য প্রদর্শনের জন্য বিজ্ঞাপন বাবদ অর্থ প্রদান করে। গুগলের এই নীতির কারণে একই ধরনের পণ্য প্রস্তুতকারী অন্য কোম্পানি, যারা গুগলকে বিজ্ঞাপন প্রদান করে না, তারা পেছনে পড়ে যায়।
Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...