খবর ২৪ ঘন্টা

টানা বৃষ্টি, স্থগিত কৈলাস–মানসরোবর যাত্রা

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

খারাপ আবহাওয়৷ সঙ্গে টানা বৃষ্টি৷ ভারতীয় দূতাবাস সূত্রে খবর ১২৪ জন তীর্থযাত্রী আটকে আছেন নেপালের সিমিকোটে৷ এছাড়াও হিলসায় আটকে আছেন ৫০ জন। তবে দূতাবাসের তরফে আশ্বাস, সিমিকোটের তীর্থযাত্রী আবাসে কমপক্ষে ৫০০ জনের থাকার সুব্যবস্থা আছে। এছাড়া প্রাথমিক চিকিৎসারও ব্যবস্থা আছে। ফলে এখনই আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। দু’‌একদিনের মধ্যে আবহাওয়া ঠিক হয়ে গেলেই বিমান পরিষেবা সচল হয়ে যাবে।
ভারতেও হিমালয় অঞ্চলে টানা ভারী বৃষ্টি এবং ধস নেমে বিপর্যস্ত জনজীবন। রবিবার উত্তরাখণ্ডের চন্দ্রপুরীর কাছে কেদারনাথ সড়কে ধস নামে। দেরাদুন শহরে বৃষ্টিতে জল জমে যায়। উত্তরপ্রদেশের কানপুরে পান্ডু নদীর জলস্তর বেড়ে ভেসে গিয়েছে জেলার বিস্তীর্ণ এলাকা। এলাহাবাদ, বারাণসীতে গঙ্গা বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে।
আটক তীর্থযাত্রীদের নামিয়ে আনার কাজ চলছে৷ আটক তীর্থযাত্রী এবং তাঁদের পরিবারের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখছেন দূতাবাসের অফিসাররা। সিমিকোট, হিলসা এবং নেপালগঞ্জে ভারতীয় প্রতিনিধিরা পুরো পরিস্থিতির উপর নজর রাখছেন। গত মাস থেকে যে জরুরি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে তা এখনও দিনে ২৪ ঘণ্টাই কাজ করছে। প্রসঙ্গত, গত মাসেও ধস এবং ভারী বৃষ্টিতে সাময়িকভাবে স্থগিত হয়ে যায় কৈলাসযাত্রা।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...