বিতর্কিত বিচারপতি সিএস কারনান তামিলনাড়ু থেকে গ্রেফতার

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

ওয়েব ডেস্কঃ গ্রেপ্তার করা হল কলকাতা হাইকোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি সিএস কারনান। মঙ্গলবার তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটুরে তাঁকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি।  ফেরার বিচারপতি কারনানের আজ অবসর! যা জেনে রাখা জরুরি ৬২ বছরের বিচারপতি কারনান ৯ মে থেকেই গ্রেপ্তারি এড়াচ্ছিলেন বিভিন্ন উপায়ে। আদালত অবমাননার অপরাধে তাঁকে ৬ মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন সুপ্রিম কোর্ট।

১২ জুন বিচারপতি পদে অবসর গ্রহণ করেন সিএস কারনান। দেশের ইতিহাসে তিনিই প্রথম কর্মরত হাইকোর্ট বিচারপতি যাঁকে আদালত অবমাননার জন্যে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। ২০০৯ সালে তাঁকে মাদ্রাস হাই কোর্টের বিচারপতি নিয়োগ করা হয়। ২০১৬ সালের সুপ্রিম কোর্ট তাঁকে কলকাতা হাই কোর্টে বদলি করে দেয়। ২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে সি এস কারনানের একটি মন্তব্য হইচই ফেলে দেয়। তাঁর অকপট অভিযোগ সুপ্রিম কোর্ট এবং দেশের অন্যান্য হাইকোর্টের মোট ২০ জন কর্মরত বিচারপতি দুর্নীতিগ্রস্ত।

মে মাসে তিনি সুপ্রিম কোর্টের ৮ জন বিচারপতির গ্রেপ্তারির নির্দেশ দেন। তার ঠিক একদিনের মাথায় ৭ বিচারপতির একটি বেঞ্চ আদালত অবমাননার অপরাধে কারনানকে ৬ মাসের কারাদণ্ডের সাজা শোনায়। শুধু তাই নয়, কারনানের মানসিক অবস্থা স্থিতিশীল কি না তা জানতে সায়াকিয়াট্রিক অ্যানালিসিস করার নির্দেশও দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করার আগেই তিনি পাড়ি দেন তামিলনাড়ু। সেখানে স্টেট গেস্ট হাউসে তাঁকে কয়েক ঘন্টার জন্য দেখা যায়। বহাল তবিয়তে অতিথি এবং সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায় তাঁকে। তবে তার কিছুক্ষণের মধ্যে ফেরার হয়ে যান তিনি। প্রোটোকল অফিসার কিংবা তাঁর ব্যক্তিগত নিরাপত্তা রক্ষী, কেউই তাঁর কোনও হদিশ দিতে পারে না।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.