রোমাঞ্চ খুঁজতে গিয়ে মৃত্যুর কোলে প্রবাসী ভারতীয় দম্পতি

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 58
    Shares

বিষ্ণু বিশ্বনাথ নামে ২৯ বছরের যুবক এবং তাঁর স্ত্রী মীনাক্ষি মূর্তি নামে ৩০ বছরের যুবতী গত সপ্তাহে ক্যালিফোর্নিয়ার জনপ্রিয় পাহাড়ি জাতীয় উদ্যান, ইওসমাইট ন্যাশনাল পার্কে ঘুরতে গিয়েছিলেন। পার্কের সব থেকে আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু টাফ্‌ট পয়েন্টের নিচে ৮০০ ফুট গভীর খাদে গত বুধবার তাঁদের দেহ দেখতে পান অন্য পর্যটকরা। তাঁরাই পার্ক কর্তৃপক্ষকে খবর দিলে গত বৃহস্পতিবার বিষ্ণু এবং মীনাক্ষির ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার করা হয়। তাঁরা আচমকা পড়ে গিয়েছিলেন নাকি নিজেরাই আত্মহত্যা করেছেন তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিস। ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়ার ইওসমাইট ন্যাশনাল পার্কে।
বিশ্বের রোমাঞ্চকর স্থানগুলিতে অ্যাডভেঞ্চারের নেশা ছিল তাঁদের। সেজন্য ব্লগও খুলেছিলেন বিষ্ণু–মীনাক্ষি। তাই তাঁরা আত্মহত্যা করেছেন, এই তথ্য মানতে নারাজ তাঁদের আত্মীয়, বন্ধু, সহকর্মী এবং পরিচিতরা। ভারতে যে কলেজ থেকে তাঁরা পাশ করেছিলেন সেখানকার পুরনো সহপাঠীরা বিষ্ণু–মীনাক্ষির আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তাঁদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।
সান ফ্রান্সিস্কো পুলিস জানিয়েছে, টাফ্‌ট পয়েন্টে থেকে পুরো পার্কের অসাধারণ দৃশ্য ভালোভাবে দেখা যাওয়ায় ওই জায়গাটি পার্কের মধ্যে অন্যতম আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। অনেকে সেখানে বিয়েও করেন। সেই জায়গার ঠিক নিচ থেকে এভাবে মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ায় রীতিমতো উদ্বিগ্ন পার্ক কর্তৃপক্ষ। পার্কের মুখপাত্র জেমি রিচার্ডস বলেছেন, ওই দম্পতি মৃত্যু কীভাবে হল তা এখনও বুঝতে পারছেন না তাঁরা। পুলিসের তদন্ত ছাড়া তাঁরা নিজেরাও তদন্ত করে দেখবেন বলে জানান জেমি। তদন্তকারী অফিসাররা জানিয়েছেন, দুজনেই পেশায় সফ্‌টওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার বিষ্ণু এবং মীনাক্ষি ২০১৪ সালে বিয়ে করেছিলেন। বিষ্ণু সান জোসের সিস্কো কোম্পানিতে সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি পাওয়ায় নিউ ইয়র্ক থেকে সম্প্রতি সান জোসে চলে যান ওই দম্পতি।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 58
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~