খবর ২৪ ঘন্টা

লন্ডন হয়ে উঠছে কলকাতা!! এবার পুজোতে : কোথায় জেনে নিন~

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

শরতের আকাশে মেঘপিয়ন খোঁজ দিয়ে যায়। নীলাকাশ যে আসছে। শরতের সেই ছুটির ছোটবেলা। খুঁটি পুজো হয়ে গেছে, রথের দিন। সাই ভেসে আসা গন্ধে এখন দুগ্গা মায়ের বন্দনার প্রস্তুতি তুঙ্গে। যদিও বর্ষাতে শহরে জলের ভেনিস, তবু মনে ইচ্ছে তো হয় কিছুদিন লন্ডনে বাস করি। সেই ইচ্ছাই স্বপ্নে নয় বাস্তবে করে দেখাবে এই বছর কলকাতার নাম করা পুজো কমিটি। কোনও দিন লন্ডনে যেতে পারবেন? তাই জন্যই কলকাতায় এবার লন্ডন ব্রিজ, বিগ বেন, বাকিংহ্যাম প্যালেস সবই দেখতে পাবেন। মোবাইলের ছবি নয়, বাস্তবে তা দেখতে এবার পুজোয় ঘুরে আসুন লেবুতলা থেকে। লেবুতলা সর্বজনীন দুর্গোৎসবের এবারের থিম “লেবুতলা থেকে লন্ডন”।

লেবুতলার মাঠে আপনি লন্ডনের রাস্তায় দাঁড়িয়ে লন্ডনের অনুভূতিতে সেলফি তুলতে পারবেন। এখানে এই বছর তৈরি করা হচ্ছে বিগ বেন, লন্ডন আই, লন্ডন ব্রিজ, বাকিংহ্যাম প্যালেস, মাদাম তুসোর মিউজিয়াম। মাদাম তুসোর মিউজিয়ামের ধাঁচেই বিভিন্ন মডেল এখানে স্থান পাবে। লেবুতলার মাঠেই হাঁটতে হাঁটতে আপনি পৌঁছে যাবেন ২২১-বি বেকার স্ট্রিটে, জানেন নিশ্চয়ই শার্লক হোমসের বাড়ি সেখানেই। এবারে গোটা লন্ডনের একটি মিনি সংস্করণ লেবুতলার মাঠেই দেখতে পাবেন। লন্ডনের আর্থ-সামাজিক ক্যানভাস থেকে শুরু করে সেখানকার স্থাপত্যের নিদর্শন সবই এখানে দেখতে পারবেন। লেবুতলার এই লন্ডনে মোড়ে মোড়ে আপনার সাথে দেখা হবে ব্রিটিশ রয়্যাল গার্ডদেরও।

এই গোটা কর্মকাণ্ডে হাত লাগাতে হায়দরাবাদের রামোজি ফিল্ম সিটি থেকে কারিগররা এসেছেন, যাঁরা বড় বড় সিনেমার সেট বানিয়ে ফেলেন। বলাই বাহুল্য গোটা ভাবনাটি পুজো কমিটির সভাপতি প্রদীপ ঘোষের মগজ থেকেই এসেছে। তাঁর ভাবনাকে বাস্তবের রূপ দিচ্ছেন শিল্পী অমর সরকার। বিরাশিতম বর্ষে পুজো কমিটির সম্পাদক সজল ঘোষ জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলকাতাকে লন্ডনের মত করে সাজিয়ে তুলতে চাইছেন। সেই ভাবনা থেকেই তাঁদের এই থিম।

লেবুতলা সর্বজনীনের চমকের এখানেই শেষ নয়, পৃথিবীর সব থেকে বড় দুর্গা তৈরি করেছিলেন মিন্টু পাল। সেই শিল্পী এবার সব থেকে দামি দুর্গা তৈরি করতে চলেছেন এখানে। লেবুতলার দুর্গাকে পরানো হবে প্রায় কুড়ি কিলো সোনা দিয়ে তৈরি শাড়ি। যার দাম প্রায় 6 কোটি টাকার মতো। এই শাড়ি স্পনসর করছে সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডস। আর প্রতীমার পুরো সাজ দেখছেন ফ্যাশন ডিজাইনার অগ্নিমিত্রা পল। তাঁর ভাবনার ছোঁয়ায় রূপ পাবে উমা, মৃন্ময়ী হয়ে উঠবে চিন্ময়ীতে। পুজো উদ্যোক্তারা প্যান্ডেলে তৈরিতেও কোনও কার্পণ্য করছে না। খরচ করা হচ্ছে প্রায় সোয়া এক কোটি টাকা। প্যান্ডেলের দায়িত্বে রয়েছেন মর্ডান ডেকরেটরস। এই বছর আপনার প্যান্ডেল হপিংয়ের তালিকায় লেবুতলাকে না রাখলে বড় মিস হয়ে যাবে। সঙ্গে নিতে ভুলবেন না সেলফি…খবর২৪ঘন্টা এবার থাকছে আপনাদের সাথেই মন্ডপে মন্ডপে

 

 

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...