সার্কের বৈঠক থেকে মাঝপথেই বেরিয়ে গেলেন সুষমা স্বরাজ, কটাক্ষ পাকিস্তানের

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 28
    Shares

বক্তব্য রেখেই রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সভার অধিবেশন থেকে বেরিয়ে গেলেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ৷ সেখানে তখন উপস্থিত সার্কের বিভিন্ন দেশের মন্ত্রীরা৷ এই ঘটনায় তাঁকে আক্রমণ করেন পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মামুদ কুরেশি। কটাক্ষের সুরে তিনি বলেন, ‘সার্কের মধ্যে থাকা দেশগুলির অগ্রগতির ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে একটা দেশ। তিনি (সুষমা) আচমকাই বৈঠক ছেড়ে চলে গেলেন। আমার মনে হয় ওঁর শরীর ভাল ছিল না। যদিও সূত্রের খবর, বিদেশ মন্ত্রীর অন্য কয়েকটি বৈঠকে যোগ দেওয়ার কথা ছিল। আর তাই এই বৈঠকের শেষ পর্যন্ত থাকতে পারেননি।

Image result for sushma swaraj SAARC
আগে ঠিক থাকলেও পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রীর সঙ্গে সুষমা স্বরাজের বৈঠক বাতিল করে ভারত। কাশ্মীরে তিন পুলিশ কর্মীকে অপহরণ করার পরই এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাছাড়া বছর দুয়েক আগে ভারতীয় সেনা বাহিনীর হাতে নিকেশ হওয়া জঙ্গি বুরহান ওয়ানির নামে অতিসম্প্রতি স্ট্যাম্পও প্রকাশ করেছে পাকিস্তান। এ হেন প্রেক্ষাপটে বৈঠক বাতিল করে ভারত। এ ব্যাপারেও প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন পাক বিদেশ মন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘ভারত বলছে আলোচনার পরিবেশ নেই। আলোচনার পরিবেশ আছে কিনা সেটা কে ঠিক করবে? আর যারা আলোচনায় করতে সম্মত হয় না তাদের সঙ্গে বাণিজ্যিক আলোচনা কী করে করা সম্ভব?’
বৈঠক বাতিল প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন সদ্য প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেওয়া ইমরান খান। টুইটে তিনি লেখেন ভারেতের নেতিবাচক আচরণে আমি হতাশ। তবে সারা জীবনে আমি এমন মানুষই বেশি দেখেছি যারা যোগ্যতা এবং দূরদৃষ্টি ছাড়াই গুরুত্বপূর্ণ পদে বসেছেন। তবে শেষ পর্যন্ত বৈঠকে না থাকলেও ভারতের অবস্থান স্পষ্ট করে দিয়েছেন সুষমা। তিনি জানিয়েছেন সন্ত্রাসের আবহ বজায় থাকলে অন্য কোনও দেশের সঙ্গে সহযোগিতার রাস্তায় হাঁটবে না ভারত। দক্ষিণ এশিয়ায় সন্ত্রাস বড় আকার ধারন করছে। শান্তি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রেও প্রধান প্রতিবন্ধকতা এই সন্ত্রাসবাদ। আর তাই সন্ত্রাসবাদকে সমূলে বিনাশ করতে হবে। সেটা করতে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকের উপর জোর দেন মন্ত্রী।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 28
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~