Paytm “পেমেন্ট ব্যাঙ্ক” : জেনে নিন খুঁটি-নাটি

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

ওয়েব ডেস্কঃ    এতদিন Paytm ছিল শুধু  ডিজিটাল ওয়ালেট। এবার থেকে এই ওয়ালেট গ্রাহকদের দেবে ব্যাঙ্কিং পরিষেবাও। গতকাল Paytm লঞ্চ করেছে তাদের পেমেন্ট ব্যাঙ্ক। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, পেমেন্টস ব্যাঙ্ক ৪ শতাংশ ইন্টারেস্ট রেটের পাশাপাশি ডিপোজিটে ক্যাশব্যাকেরও সুবিধা মিলবে ৷ রিপোর্টে জানানো হয়েছে, প্রোমোশনাল অফার হিসেবে যে গ্রাহকরা পেমেন্ট ব্যাঙ্কে ২৫,০০০ টাকা রাখবে তারা ২৫০ টাকার ক্যাশব্যাকের অফার পাবেন ৷ পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান বিজয় শেখরের ভাষায় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক Paytm  নতুন একটি ব্যাঙ্কিং হিসেবে মডেল তৈরির সুযোগ দিয়েছে ৷ গ্রাহকদের টাকা সুরক্ষিত রাখাই তাদের মূল মন্ত্র।

paytm-ব্যাঙ্ক ঠিক কিভাবে কাজ করবে তা জেনে নিনঃ-

Paytm অ্যাকাউন্ট নিজে থেকেই ট্রান্সফার হয়ে যাবে Paytm পেমেন্ট ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে। তবে সেটি অবশ্যই গ্রাহক কে জানিয়ে। আপনি গ্রাহক ব্যাঙ্কিং পরিষেবা না চান তবে তা জানিয়ে মেল কতে হবে  help@paytm.com অথবাpaytm.com/care -এ। সেক্ষেত্রে  ওয়ালেটে থাকা ব্যালেন্স ট্রান্সফার হয়ে যাবে  গ্রাহকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে। Paytm অ্যাকাউন্ট শুধু ডিজিটাল ওয়ালেটের অ্যাকাউন্ট হিসেবেই থাকবে। কেউ চাইলে Paytm পেমেন্ট ব্যাঙ্কে কারেন্ট বা সেভিংস অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন, আপনার লগ ইন আইডি থেকেই। পেমেন্ট ব্যাঙ্ক গ্রাহকদের থেকে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ওয়ালেট, সেভিংস ও কারেন্ট অ্যাকাউন্টে জমা নিতে পারবে ৷ পাশাপাশি অনলাইন ব্যাঙ্কিং, ডেবিট কার্ড ও মোবাইল ব্যাঙ্কিংয়ের সুবিধাও থাকবে গ্রাহকদের জন্য ৷ পেমেন্টস ব্যাঙ্ক কোনও লোন দিতে পারবে না গ্রাহকদেরকে ৷ তবে অন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির সঙ্গে যুক্ত হয়ে গ্রাহকদের এই সুবিধা দিতে পারবে ৷ Paytm পেমেন্ট ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে গ্রাহককে নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে তা তৈরী করতে হবে। প্রথমত, Paytm পেমেন্ট ব্যাঙ্কের পেজে যেতে হবে। ক্লিক করুন Request an Invite-এ। তারপর Paytm অ্যাকাউন্ট আইডি দিয়ে লগ ইন করুন। এরপর আপনার লগ ইন ইন্টারেস্ট চলে যাবে Paytm পেমেন্ট ব্যাঙ্কে।

 

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.