কোনওক্রমে যাত্রীবাহী বিমানকে রক্ষা করলেন বিমানচালক…

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 18
    Shares

নষ্ট হয়ে গিয়েছে স্বয়ংক্রিয় যন্ত্রপাতির বেশিরভাগ যন্ত্র। তার উপর আবহাওয়া এতোটাই খারাপ যে রানওয়ে দেখা যাচ্ছিল না। এই অবস্থায় সম্পূর্ণ নিজস্ব দক্ষতায় এবং দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়ে অন্য বিমানবন্দরে নিরাপদে বিমান নামিয়েছিলেন পাইলট। ঘটনাটি ঘটেছিল গত ১১ তারিখ নিউ ইয়র্কের জেএফকে বিমানবন্দরে এয়ার ইন্ডিয়ার এআই–১০১ উড়ানে। সম্প্রতি ওই ঘটনার রিপোর্ট এয়ার ইন্ডিয়াকে দিয়েছে জেএফকে বিমানবন্দরের এটিসি। এয়ার ইন্ডিয়ার তরফে সেভাবে স্পষ্ট করে কিছু না জানানো হলেও তারপরই বিষয়টি সামনে আসে। এয়ার ইন্ডিয়ার তরফে বলা হয়েছে, যেভাবে বোয়িং ৭৭৭–৩০০ অবতরণ করিয়েছিলেন পাইলট, সেই প্রশিক্ষণ তাদের পাইলটদের দেওয়া হয় না। এভাবে ৩৭০ জনের প্রাণ বাঁচানোর জন্য পাইলটের প্রশংসা করলেও কেন এই ঘটনা ঘটল তা জানতে তদন্ত করছে এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ।
যাত্রী এবং কর্মী মিলিয়ে বিমানে ছিলেন ৩৭০ জন। জ্বালানি অত্যন্ত কম। দিল্লি থেকে নিউ ইয়র্কগামী এয়ার ইন্ডিয়ার ওই বোয়িং ৭৭৭–৩০০ বিমানটি ছিল নন স্টপ। কিন্তু জেএফকে বিমানবন্দরে নামার সময় পাইলট দেখতে পান আবহাওয়া অত্যন্ত খারাপ। ৪০০ ফুট নিচের রানওয়ে দেখা যাচ্ছিল না। টানা ১৫ ঘণ্টা ওড়ার পর বিমানে জ্বালানি ছিল মাত্র ৭২০০ কেজি। তার উপর বিমানের তিনটি ইন্সট্রুমেন্ট ল্যান্ডিং সিস্টেম বা আইএলএস–ই খারাপ হয়ে গিয়েছিল। আইএলএস–এর সাহায্যেই দিনের যে কোনও সময়, স্বয়ংক্রিয়ভাবে যে কোনও আবহাওয়ায় ঠিকভাবে বিমান অবতরণ করেন পাইলটরা। এছাড়া ৯ বছরের পুরনো ওই বিমানের অটো ল্যান্ডিং সিস্টেম, উইন্ডশিয়ার সিস্টেম, অটো স্পিট ব্রেক এবং অক্সিলিয়ারি পাওয়ার ইউনিটও ঠিকমতো কাজ করছিল না।
পুরো বিষয়টি সম্পর্কে জেএফকে–র এটিসি–কে সতর্ক করেন পাইলট। এটিসি–র তরফে আশ্বাস দেওয়া হলেও সেভাবে কোনও বিকল্পের কথা বলা হয়নি। জেএফকে ছাড়া অত বড় বোয়িং বিমান অবতরণের নিরাপদ বিমানবন্দর ছিল অ্যালব্যানি, বস্টন বা কানেটিকাটের ব্র‌্যাডলি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। কিন্তু জ্বালানি কম থাকায় অত দূর উড়ে যাওয়ার ঝুঁকি নিতে চাননি পাইলট। তাই জেএফকে–এর উপর ৩৮ মিনিট চক্কর কাটার পরও আবহাওয়া ঠিক না হওয়ায় সম্পূর্ণ নিজস্ব বুদ্ধি এবং দক্ষতায় জেএফকে–র পাশে তুলনামূলক ছোট বিমানবন্দর নেওয়ার্কে এআই–১০১ অবতরণ করান পাইলট।
Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 18
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~