মোদিকে চিঠি লিখেও কোনও কাজ হয়নি, ফের অনশনে আন্না

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 26
    Shares

দ্রুত লোকপাল–‌লোকায়ুক্ত নিয়োগের জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বারবার চিঠি লিখেছেন। গত সাড়ে ৪ বছরে ৩২টি। কিন্তু কোনও কাজ হয়নি। অগত্যা, ২০১৩–‌র ধাঁচে আরও একবার অনশনে বসবেন তিনি। তবে রাজধানী দিল্লি নয়, এবার অনশনে বসছেন মহারাষ্ট্রে নিজের গ্রাম রালেগাঁও সিদ্ধিতে। ৩০ জানুয়ারি থেকে। নতুন বছরে, লোকসভা নির্বাচন নিয়ে যখন চারদিকে ব্যস্ততা, এই সময় আবার অনশনে বসতে চলেছেন আন্না হাজারে। ২০১৩ সালে দুর্নীতিমুক্ত স্বচ্ছ প্রশাসন গড়তে লোকপালের দাবিতে রাজধানী দিল্লিতে অনশনে বসেন এই অশীতিপর সমাজকর্মী। তাঁর আন্দোলনে চাপে পড়ে গিয়েছিল তৎকালীন ইউপিএ সরকার। সাধারণ মানুষের বিপুল সমর্থনে গণ–আন্দোলনে পরিণত হয়েছিল ওই অনশন। আন্নার কথায়, ‘‌ওঁদের আরও একটা সুযোগ দিতে অনুরোধ করা হয়। আমি সে–কথা বিশ্বাস করেছিলাম, তাই অনশন করিনি। বিক্ষোভ কর্মসূচি বাতিল করেছিলাম। কিন্তু এখন এটা স্পষ্ট যে, সরকার আমায় ও দেশের মানুষকে ভুল বুঝিয়েছে। গত ৪ বছরে সরকার লোকপাল ও লোকায়ুক্ত নিয়োগ করেনি।’‌ আন্না বলেছেন, এশিয়ার দুর্নীতিগ্রস্ত দেশগুলির মধ্যে অন্যতম ভারত। উল্লেখ্য, লোকপাল নিয়োগ না করার প্রতিবাদে চলতি বছরের ২ অক্টোবর থেকে আমরণ অনশনে বসবেন বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন সমাজকর্মী আন্না হাজারে। মহারাষ্ট্রের জলসম্পদ মন্ত্রী গিরিশ মহাজনের অনুরোধে নিজের সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হটেন আন্না।
এর আগেও প্রশাসনকে দুর্নীতিমুক্ত করতে লোকপালের দাবিতে আন্দোলনে নেমেছিলেন। সেই আন্দোলন এখনও শেষ হয়নি। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ সরকারকে আন্না ফের একবার মনে করিয়ে দিতে চান তাঁদের দেওয়া প্রতিশ্রুতির কথা। ২০১৪ সালে মহারাষ্ট্রের বিজেপি সরকার লোকপাল চালু করার প্রতিশ্রুতি দিলেও তা পালন করেনি। মোদি সরকারের সাড়ে ৪ বছর অতিক্রান্ত। এই সময়কালে লোকপাল–‌লোকায়ুক্ত চালুর দাবিতে ৩২টি চিঠি পাঠিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। কিন্তু সরকারের কোনও হেলদোল নেই। তাই লোকসভা নির্বাচনের কয়েক মাস আগে বিজেপি সরকারকে চাপে ফেলতে অনশনে বসবেন গান্ধীবাদী নেতা।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 26
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~