অসমের অনুষ্ঠানে আসতে নিষেধ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 24
    Shares

অসমের শ্রীমন্ত শঙ্করদেব সঙ্ঘ ৮৮তম মোরিগাঁও অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আমন্ত্রণ করেছিল। এবার তারা মোদিকে আসতে নিষেধ করেছে।
১৯৩০–‌তে প্রতিষ্ঠিত এই সঙ্ঘ রাজ্যের বৃহত্তম ধর্মীয়–‌‌সামাজিক প্রতিষ্ঠান। ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে সঙ্ঘের চার দিনের ধার্মিক অধিবেশনে বিশেষ অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। নাগরিকত্ব সংশোধনী‌ বিল পাশ হতেই তেতে উঠেছে অসম। দু’‌বছর আগে রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনী প্রচারে গায়ক জুবিন গর্গের কণ্ঠ কাজে লাগিয়ে প্রচার করেছে বিজেপি। স্বেচ্ছায় প্রচারে নেমেছিলেন জুবিন। নাগরিকত্ব বিল পাশ নিয়ে অসমের মুখ্যমন্ত্রীর উদাসীনতায় হতাশ জুবিন জানিয়েছেন, ‘লোকসভায় বিল পাশ হওয়ার পরও মুখ্যমন্ত্রী আপত্তি করতে পারতেন। তার পর যা হত, সেটা পরে দেখা যেত। আমি এখনও মাথা ঠান্ডা রাখতে চাই। এক সপ্তাহের মধ্যে মুখ্যমন্ত্রী যদি কোনও ব্যবস্থা করেন, ভাল হয়। না–‌হলে আমি নিজের মতো করে বিক্ষোভ দেখাব।’‌ মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালকে চিঠি দিয়েছিলেন গায়ক। সাড়া না মেলায় অসন্তোষ জানাতে সোশ্যাল মিডিয়াকে বেছে নিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে তঁার দীর্ঘ ফেসবুক পোস্ট এই রকম:‌ ‘‌পঁাচ দিন আগে আপনাকে চিঠি লিখেছিলাম। বোধ হয় ব্যস্ততার কারণে উত্তর দেওয়ার সময় পাননি। আমার কণ্ঠ ব্যবহার করে আপনারা যে–‌ভোট পেয়েছেন, তা কি আমি ফেরত পেতে পারি? পারিশ্রমিক ফিরিয়ে দিতে আপত্তি নেই আমার।’ফেসবুকে গায়কের অনুগামীর সংখ্যা সাড়ে আট লক্ষের কিছু বেশি। এই পোস্টের পর ‘‌লাইক’‌ ও প্রতিক্রিয়ার সংখ্যা ক্রমশই বাড়তে থাতে। তবে শুধু জুবিন নন, অসমের আরেক বিখ্যাত গায়ক পাপনও এই বিলের বিরোধিতা করেছেন। তাঁরও মনে হয়েছে, এই বিল অসমের বাসিন্দাদের বিশ্বাসে আঘাত হানবে।‌
রাজ্যে বিজেপি সরকার থাকা সত্ত্বেও কেন্দ্র এই বিল পাশ করায় হতাশ অসমবাসী। জেলায় জেলায় বিক্ষোভ, প্রতিবাদ চলছেই। নাগরিকত্ব বিলের প্রকাশ্য বিরোধিতায় নেমেছে অসমের শিল্পী–‌মহলও। এবার বিজেপি–‌কে দেওয়া ভোট ‘ফিরিয়ে দেওয়ার’‌ দাবি তুলেছেন জুবিন।

Facebook Comments


শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 24
    Shares

খবর ২৪ ঘন্টা

খবর এক নজরে…

No comments found