চিন্নাস্বামীতে দুই “সতীর্থের” লড়াইয়ে জিতল বিরাটের বেঙ্গালুরু

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 2
    Shares

 স্পোর্টস ডেস্ক~ ভারতীয় জাতীয় দলের দুই সতীর্থ রোহিত শর্মার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এবং বিরাটের বেঙ্গালুরু গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল চিন্নাস্বামীতে। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে আরসিবির শুরুটা ভালোই করেছিল মনন ভোরা , কুইন্টন ডি কক জুটি। পাওয়ার প্লে’তে ৫ ওভারে জুটিতে ৪৬ রান তোলে দুজনে। মিচেল ম্যাকক্লেনাঘানের বলে রোহিত শর্মাকে ক্যাচ দিয়ে ১৩ বলে ৭ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ডি কক। “ওয়ান্ডার কিড” মায়াঙ্ক মার্কান্ডের বলে ৩১ বলে ৪৫ রান করে এলবিডব্লিউ আউট হন মনন ভোরা। ৬১ রানে ২ উইকেট হারানোর পর তৃতীয় উইকেটে জুটিতে ৬১ রান যোগ করেন ব্রেন্ডন ম্যাককালাম এবং বিরাট কোহলি। এরপর ২৫ বলে ৩৭ রান করে ম্যাককালাম প্যাভিলিয়নে ফিরে যাওয়ার পরেই উইকেটের মন্হর গতি এবং মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বোলারদের স্লো কাটারে ছন্দপতন ঘটে‌ আরসিবি ইনিংসে। হার্দিক পান্ডিয়ার এক ওভারে পরপর আউট হন বিরাট (৩২) এবং মনদীপ (১৪) । শেষের দিকে ১০বলে ২৩ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলে ধুঁকতে থাকা আরসিবি ইনিংসকে ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬৭ রানে পৌঁছে দেন কলিন – দে- গ্রান্ডহোম। ৩টি উইকেট নেন হার্ডিক পান্ডিয়া। ১টি করে উইকেট নেন বুমরা,মার্কান্ডে এবং ম্যাকক্লেনাঘান।

১৬৮ রান তাড়া করতে নেমে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের শুরুটা ভালো হয়নি মুম্বাইয়ের। প্রথম ওভারেই নিজের প্রথম বলে টিম সাউদির বলেছেন বোল্ড হয়ে শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান ইশান কিশান। ৪র্থ ওভারে পরপর দুবলে সূর্যকুমার যাদব (৯) এবং রোহিত শর্মাকে (০) ফিরিয়ে দিয়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে বেশ কিছুটা ব্যাকফুটে ঠেলে দেয় আরসিবি। ১৩ রান করে সিরাজের বলে ১৩ রান করে  আউট হন পোলার্ড। ২৩ রান করে রান আউট হন জে পি ডুমিনি। এরপর পান্ডিয়া ভাতৃদ্বয় প্রায় শেষ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যান। হার্দিক পান্ডিয়া ( ৫০ ) এবং ক্রুনাল পান্ডিয়া  (২৩)  চেষ্টা করলেও ৭ উইকেট হারিয়ে ১৫৩ রানেই থেমে যায় মুম্বাইয়ের ইনিংস। ১৪ রানে চিনাস্বামীতে বিরাট – পত্নী অনুস্কার সামনে গুরুত্বপূর্ণ জয় ছিনিয়ে নেয় টিম সাউদিরা।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 2
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.