নৃশংস! সালিশির নিদানে কাটা হল আদিবাসি যুবকের হাতের আঙুল….

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 9
    Shares

প্রসাসনের পক্ষ থেকে একাধিকবার সালিশির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে৷ তাতেও যে কোনও কাজ হয়নি, তা ফের একবার প্রমাণিত হল৷ ফের একবার সামনে এল মধ্যযুগীয় বর্বরতার ঘটনা। এবার বীরভূমের পাড়ুইয়ে ডাইন অপবাদে এক আদিবাসী যুবকের হাতের দশটি আঙুল কেটে ফেলা হল। সালিশি সভা ডেকে গ্রামের মোড়ল এই নিদান দিয়েছে। ঘটনায় গুরুতর আহত ওই ব্যক্তিকে ভর্তি করা হয়েছে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। ‌এ ধরনের ঘটনা গ্রামাঞ্চলে এই প্রথম নয়। এর আগেও এরকম নৃশংস ঘটনা ঘটেছে। আইনি ব্যবস্থা থেকে শুরু করে সাধারণ মানু্ষকে কুসংস্কার সম্পর্কে সচেতন করার পরেও এ ধরনের ঘটনা ঘটে চলেছে।
জানা গিয়েছে, আক্রান্ত যুবকের নাম ফন্দি সর্দার। পাড়ুইয়ের কসবা অঞ্চলের রাধাকেষ্টপুর গ্রামের বাসিন্দা তিনি। তাঁর উপর কালা জাদু ভর করেছে বলে কয়েকদিন ধরেই দাবি করতে শুরু করেছিলেন স্থানীয়রা। এরপরই গ্রামে বসানো হয় সালিশি সভা। সেখানে প্রথমে স্থির হয়, বলি দেওয়া হবে ফন্দি সর্দারকে। কিন্তু পরে সিদ্ধান্ত বদলে তাঁর দু’‌হাতের ১০টি আঙুল কেটে নেওয়ার কথা ঘোষণা করে গ্রামের মোড়ল। এরপরই ফন্দি সর্দারের দুহাতের ১০টি আঙুল কেটে ফেলা হয়। শেষপর্যন্ত তাঁকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রথমে থানায় রিপোর্ট নেওয়া না হলেও পরে ঘটনার তদন্ত শুরু করে পাড়ুই থানার পুলিস। এই ঘটনায় ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে গোটা গ্রামে। আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে ফন্দি সর্দারের পরিবার। তাঁদের প্রায় একঘরে করে দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে বিডিওকে ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট পাঠাতে বলেছেন জেলাশাসক।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 9
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~