কোনও রকমে আস্থাভোটে জিতে মুখরক্ষা প্রধানমন্ত্রীর

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 10
    Shares

কোনও রকমে গদি বাঁচালেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। আস্থা ভোটে জিতলেও ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে ব্রিটেনের পার্লামেন্টে ঐতিহাসিক ও লজ্জাজনক পরাজয় হয়েছে তাঁর। তবে এরপর অবশ্য ৩২৫–৩০৬ ব্যবধানে আস্থা ভোটে জিতলেন। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন জানিয়েছে, ব্রিটেনের প্রত্যাহার প্রস্তাবের শর্ত নিয়ে নতুন করে আলোচনা হবে না। এই পরিস্থিতিতে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী কী করেন, সেদিকেই তাকিয়ে আন্তর্জাতিক মহল থেকে শুরু করে ব্রিটেনের সাধারণ নাগরিকরা। এই বছরের ২৯ মার্চ ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার কথা ব্রিটেনের। কিন্তু পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে সেটাও এখন পিছিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা। অনেকেরই আবার দাবি, ব্রেক্সিট নিয়ে দ্বিতীয়বার গণভোট হোক। এখন দেখার মে সরকার এই পরিস্থিতিতে ব্রেক্সিট নিয়ে কী সিদ্ধান্ত নেয়?‌ এদিকে, আস্থা ভোটে জেতার পর মে জানিয়েছেন, এবার তিনি সব দলের সঙ্গে আলাদা আলাদা করে কথা বলে নতুন ব্রেক্সিট চুক্তি তৈরি করবেন। তবে মাত্র ১৯ ভোটের ব্যবধান। তাতেই আপাতত গদি বাঁচাতে সক্ষম হলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে। যদিও গত মঙ্গলবার পার্লামেন্টে ভোটাভুটিতে খারিজ হয়ে গিয়েছিল টেরেসা মে–র প্রস্তাবিত ব্রেক্সিট চুক্তি। প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবিত চুক্তির বিপক্ষে পড়েছিল ৪৩২টি ভোট। পক্ষে ছিল ২০২টি। এমনকি, তাঁর দল কনজারভেটিভ পার্টির অনেক এমপি ভোট দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবের বিরুদ্ধে। এরপর বুধবার হাউস অফ কমন্সে তাঁর সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা এনেছিলেন লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন। গভীর রাতেই অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে ভোটাভুটি হয়। কিন্তু এত কিছুর পরেও আস্থা ভোটে মে সরকারের পতন ঘটেনি। মাত্র ১৯টি ভোটে জিতে যান মে।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 10
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~