স্টিং অপারেশনে ফাঁস ৩ মন্ত্রীর সচিবের ঘুষকাণ্ড

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 17
    Shares

উত্তরপ্রদেশের পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায়ের কল্যাণমন্ত্রী ওমপ্রকাশ রাজভর, খনি এবং আবগারি মন্ত্রী অচর্না পান্ডে এবং প্রাথমিক ও উচ্চশিক্ষা মন্ত্রী সন্দীপ সিং— ‌এই তিন মন্ত্রীর সচিব ওমপ্রকাশ কাশ্যপ, এস পি ত্রিপাঠী এবং সন্তোষ অবস্তি ঘুষকাণ্ডে অভিযুক্ত। স্টিং অপারেশনে দেখা গেছে, শিক্ষা দপ্তরের এক আধিকারিকের বদলির রফা করছেন কাশ্যপ। সাহারানপুরের এক খনির বরাত পাইয়ে দিতে সমঝোতা করছেন ত্রিপাঠী এবং বিনাপয়সার সরকারি বই স্কুলে স্কুলে বিলি করতে নিজের ‘‌ভাগ’‌ চাইছেন অবস্তি। এ সবই নাকি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের ‘‌নাকের ডগায়’‌ চলছিল। কিন্তু সেই সুদিন রইল না। একটি বেসরকারি চ্যানেলের স্টিং অপারেশন ওঁদের ধরিয়ে দেওয়ায় বরখাস্ত হয়েছেন ওই ৩ ব্যক্তিগত সচিব। যাঁদের সচিবেরা ঘুষ চেয়ে ধরা পড়েছেন, সেই সব মন্ত্রীরা কী বলছেন?‌ প্রশ্ন উঠতেই বিরক্ত রাজভর। জানিয়েছেন, ‘‌এক সরকারি কর্মীর ব্যাপারে আমি কী করতে পারি?‌’‌ অচর্না পান্ডে বিস্মিত। জানিয়েছেন, ‘‌আমার ঘরে বসে এসব কাণ্ড ঘটছিল, জেনে অবাক লাগছে। আগাগোড়া সততার রাজনীতি করেছি। আজ যা ঘটল, তাতে আমি উদ্বিগ্ন। আমি নিজে তদন্ত করব। দোষী ছাড়া পাবেন না।’‌ সন্দীপ সিং বিদেশে থাকায় তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

কীভাবে কাজ করতেন ওই অভিযুক্ত সচিবরা? বলা হয়েছিল তাঁরা মন্ত্রীদের সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দেবেন। পরিবর্তে খুশি করে দিতে হবে। মানে ঘু্ষ দিতে হবে আর কী!‌ দীর্ঘদিন ধরে এই রফার মাধ্যমে ফুলেফেঁপে উঠছিলেন উত্তরপ্রদেশ সরকারের ৩ মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সচিব। আর গতকাল স্টিং অপারেশন প্রকাশ্যের আসার পর রাজ্য জুড়ে তোলপাড় পড়ে যায়। ওই তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘‌দুর্নীতি বরদাস্ত করে না এই সরকার। যথাযথ ব্যবস্থা হবে।’‌ সিট এবং লখনউ পুলিসের এডিজি–‌কে ১০ দিনের মধ্যে তদন্তের রিপোর্ট জমা দিতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Image result for three secretaries caught in sting operation

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 17
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~