হনুমানজী কি আজও আছেন!!!….

 ভক্তদের যুক্তি হলো রামায়ণে রামের পরলোক ব্যক্ত হয়েছে, কিন্তু রামভক্ত মহাবীরের মৃত্যু কোথাও ব্যক্ত নয়।
ভক্তদের মতে হিন্দু মাইথোলজি বলছি হনুমানজী অমর এবং পরম ব্রহ্মজ্ঞ।

শুভ অক্ষয় তৃতীয়ায় অক্ষয় হোক সোনার বাঙালিয়ানা

ওয়েব ডেস্ক~ অবাঙালিদের যেমন ধনতেরস, আমাদের তেমনই অক্ষয় তৃতীয়া৷ তবে এখন সব যেন মিলে মিশে একাকার৷ কিন্তু কি এই অক্ষয় তৃতীয়া? সনাতন ধর্মীয় বিধান অনুযায়ী [বিস্তারিত…]

নতুন বছরে পাতে থাকুক ষোলআনা বাঙালিয়ানা

শ্রীপর্ণা~ সারা বছর তো অনেক হল. এবার কিন্তু সময় আমাদের পুরোনো মেনুতে ফেরার৷ মানে জমিয়ে বাঙালি খাবার খাওয়ার৷ পাতে সাদা সরু চালের গরম ভাত, ঘি [বিস্তারিত…]

চৈত্র সংক্রান্তির আগের দিন নীল পুজোতে মাতলেন সন্তানবতী হিন্দু নারীরা…

নীলের ঘরে দিয়ে বাতি, জল খেয়ো গো পুত্রবতী। ” আগে না হয় প্রচলন টাই বলি। চড়ক পূজার এক অঙ্গ নীল পূজা। সন্তানের মায়েরা সন্তানদের উদ্দেশ্যে মঙ্গলকামনায় এই পূজা করেন। আর বিশ্বাস যে নীল হলো মা ষষ্ঠী, আর তাই শিবের মাথায় জল ঢেলে, বাতি জালিয়ে মায়ের আরাধনা করা হয়।

জানেন কি,পৃথিবীর বুকে এমন জায়গার কথা যেখানে,যেকেউ যেকোনো অবস্থায় হঠাৎ ঘুমিয়ে পড়েন???…

আমরা এখানে কথা বলতে চলেছি কাজাকিস্তানের একটি গ্রাম সম্পর্কে যে জায়গাটি প্রায় বিগত চার বছর ধরে এই রহস্যময় ঘুম রোগে আক্রান্ত। এই রোগটির জন্যই এই জায়গাটিকে স্লিপি হলো (sleepy hollow) পর্যন্ত বলা হয়ে থাকে।

জানেন কি, আজও পৃথিবীতে এই ৮টি কাজ কেবল নারীদের দ্বারাই সম্ভব!…

সারা পৃথিবীতে নারী জাতির ওপর বহু প্রাচীনকাল থেকেই চরম অবমাননা হয়ে এসেছে। নারীদের সমস্ত ক্ষেত্রে পুরুষরা নিজেদের পায়ের তলায় রেখে নিজেদের আধিপত্য বিস্তারে সচেষ্ট হয়েছে।

বাঙালির কিছু নিজস্ব দ্রব্য যা চিরন্তন বাঙালিয়ানার পরিচয়…

এমন কোন বাঙালিকে পাওয়া যাবেনা যে গোটা গ্রীষ্মকাল কোন রকম কোন ট্যালকম পাউডার ব্যবহার না করে কাটিয়ে দিয়েছে। বিশেষত কিউটিকিউরা যা কিনা রোদে বাঙালিকে ঠাণ্ডা রাখে এবং গরমে ঘামাচি মুক্ত রাখে, এই ধরনের ট্যালকম পাউডার অতি অবশ্যই বাঙালীর গ্রীষ্মকালীন ড্রেসিংটেবিলে শোভা পায়। শুধুমাত্র একবার মাখলেই এই পাউডার চলেনা। যতটা সম্ভব পুরু করে শুরু করে বিভিন্ন লেয়ারে এবং দিনের বিভিন্ন সময়ে একাধিকবার এই ট্যালকাম পাউডারের ব্যবহার হয়ে থাকে। সমগ্র মুখে মেখে প্রায় ভ্যাম্পায়ারের মতন চেহারা করে এবং ঘাড় গলা ও হাত পুরোপুরি সাদা করে মেখে তবেই কিন্তু বাঙালি ট্যালকম পাউডারের উপযোগিতা পেয়ে থাকে।

জেনে নিন, কোন রঙের গোলাপ কার জন্য সঠিক প্রযোজ্য….

আপনি কি গোলাপ উপহার দেবার কথা ভাবছেন? আমরা অনেক সময় ভুল লোককে ভুল গোলাপ উপহার দিয়ে থাকি। হয়তো আমরা জানতেও পারি না, যে রঙের গোলাপ উপহার কাউকে উপহার দিলাম , ব্যক্তির পারস্পরিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে সেই গোলাপ হয়ত তার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়।

ভালোবাসার এক বিরল ছবি ধরা পড়ল ক্রুজার ন্যাশনাল পার্কে…

ক্রুজার ন্যাশনাল পার্কের ধরা পড়ল এক বিরল ছবি। যেখানে এক সিংহী তার শাবককে নিয়ে চলেছিল। প্রায় ২ কিমি পথ চলার পর মা যখন ক্লান্ত হয়ে [বিস্তারিত…]

সাধু সাবধান ~ বিজেপি ও বাংলায় সাম্প্রদায়িকতার বিষ ~

বাংলায় একটা riot লাগাতে পারলে, একটা দাঙ্গা বাঁধাতে পারলে সীমান্তবর্ত্তী রাজ্যে Article 356এ রাষ্ট্রপতি শাসন…  বাকি তো শিশুরাও জানে-বোঝে। 

চুলোয় যাক গণতন্ত্র-ঐতিহ্য বা সংস্কৃতি , রবিঠাকুর বা নজরুল নন, ওনাদের নমস্ব ব্যাক্তিত্ব গোপাল পাঁঠা। হিন্দুত্বের ধ্বজাধারীরা দখল করতে পারদর্শী, যেখানে বিচ্ছিন্নতাবাদী শক্তি সেখানেই তাদের “মিত্রোঁ” হাজির। সে ত্রিপুরার আইপিএফটি হোক বা দার্জিলিং এর বিমল গুরুং। 

আজ সোমবার ~ জেনে নিন দেবাদিদেব মহাদেবের আরাধনার সঠিক কিছু বিধিনিষেধ …

সাধারণ ভাবে আমরা বলে থাকি যে, সেবা করতে না পারো কাউকে অবহেলা করো না। আমরা মানুষ বড়ো নিয়মের বাঁধনে আসীন হতে চাই ।আর প্রচলিত বিধানে নিবেদনকেও সেই ভাবে বেঁধে দিয়েছি।

আজও বাংলার ঘরে ঘরে হাজির… জেনে নিন বাঙালির সবথেকে পরিচিত ব্র্যান্ডটির ইতিহাস

আজও ” সুরোভিত অ্যাণ্টিসেপটিক ক্রিম ” শুনলেই সেই বোরোলিন মনে পড়ে। তাই সেকাল নয় একালেওসেই চল অব্যাহত। মনে হয় খুব এই বোরোলিনের ইতিহাস একটু জানি। আসুন তবে সেই আশা পূর্ণ করা যাক।

জানেন কি, যে কারণে বানজারাদের মধ্যে আজও শিশু কন্যার কদর বেশী…

 সরকার যখন ” বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও “, কন্যাশ্রী, প্রকল্প আনছেন ঠিক তখনই সমাজের বুকে এমন এক সম্প্রদায় মেয়ে চায়। যখন কৌলিন্য প্রথা ভেবে মেয়েকে গলগ্রহ করে বয়স্কের সংসার আর শরীরের ক্ষুদা করে পিতা গলায় বস্ত্র দিয়ে হাত জড়ো করে পাত্রের হাতে সমর্পণ করে, যখন কন্যাপণ নিয়ে বাবা মাকে দগ্ধ কন্যার মুখ দেখতে হয়, যখন কন্যা হয়েছে বলে স্বামী তার স্ত্রীকে পথে বার করে দেন, ভ্রুকুটি ঘিরে কন্যা ভ্রুণ শেষ করে ফেলা হয় তখন কেবল গণিকা হতেই বানজারা সম্প্রদায় মেয়ে চান।

জানেন কি, এখানে হনুমানজীর পূজা আর লাল রঙ আজও ব্রাত্য !!!…

দ্রোণগিরি ” নাম করলেই পুরাণের পাতা কথা বলে। রামায়ণের হনুমান, পবনপুত্র সেখানে বহু বছর ব্রাত্য। উত্তরাখণ্ডের আলমোড়া বললেই সাধু তীর্থ মনে পড়ে যায়। মনে পড়ে যায় আলমোড়া থেকে বিবেকানন্দের পত্র। মিস বুলের কথা, আর নিবেদিতার গুরুশিক্ষার পত্রাবলী। সব মিলিয়ে স্থানটি আধ্যাত্মের ধারাপাত বয়ে নিয়ে চলেছে।

সঙ্কট মোচনে কেন জপ করবেন “হনুমান চালিশা”! জেনে নিন……

আজ মঙ্গলবার, তাই আমরা প্রায় সবাই হনুমানজীর পূজা করব, তাই তো? হিন্দুমতে রামভক্ত হনুমানজী বিশেষ ভাবে উল্লেখ্য।হনুমান জী পবনপুত্র, রামচন্দ্রের অনুরাগী অনুগত চরিত্র।

জেনে নিন, ভারতের সবথেকে বিষাক্ত ও বিপদজনক সাপেদের সম্পর্কে…

আসুন আজ সোমবার ভগবান শিবের উপাসনায় আমরা তাঁরই অঙ্গে, ভগবান শিবের কন্ঠে জড়িয়ে থাকা এবং মা মনসার বাহন এই সাপের আবাসস্থল সম্পর্কে জানি

আপনিও কি অন্যকে ভয় দেখিয়ে মজা পান ? তাহলে দেখুন কি মর্মান্তিক হতে পারে এই আনন্দ…

এভাবে Prank করার আগে আবারো ভাবুন এবং দেখে নিন নিচের ভিডিওটি… দয়া করে জনস্বার্থে শেয়ার করতে ভুলবেন না …

ধর্মের নামে ভণ্ডামি, গুরু সেজে গুরুপাপ ~ জেনে নিন ভারতের এমন ১০জন ধর্মগুরুর সম্পর্কে

ধর্মগুরুদের নিয়ে মাতামাতি ভারতবাসীর প্রাচীন অভ্যাস ৷ বিরিঞ্চিবাবার গল্পের ছায়া বাস্তব জীবনের প্রতি পদে ৷ তাও হুঁশ ফেরেনা কারোরই ৷ সুনাম ও দুর্নাম দুদিক দিয়েই খ্যাত বা কুখ্যাত হয়েছেন এই গুরুরা ৷

জঙ্গলমহলে দেখা মিলল বাঘের, ঘিরে ফেলে ধরার প্রচেষ্টা… কিন্তু তারপর? দেখুন ভাইরাল ভিডিও

বাঘের আতঙ্কে দিন কাটছে জঙ্গলমহলবাসীর , প্রশাসন ও বনদপ্তর মিলে চলছে চিরুনি তল্লাশি। অবশেষে দেখা শনিবার সকালে মিলল তাঁর

আজ ৯৯৯ বছর পরে সূর্যের রাশি পরিবর্তন !! জেনে নিন আপনার রাশিচক্রে কি কি পরিবর্তন আসতে চলেছে…

আজ সূর্যের রাশি পরিবর্তন হয়েছে। সূর্যের এই রাশি পরিবর্তনে সূর্য সংক্রান্তির এক মহা সংযোগ ঘটেছে। ৯৯৯ বছর পরে এই মহান ঘটনার সাক্ষী থাকলাম আমরা। এই মহা সংযোগের তাৎপর্য অসীম। এর ফলে বেশকিছু রাশির লোকজনের ভাগ্য পরিবর্তন হতে চলেছে

পুরাণ ~ ইতিহাসের পাতায় পাতায় নারীদের ক্ষমতায়ন ~ শক্তির প্রতীক শক্তির আধার নারী

সেই পুরা কাল থেকে শুরু করে বর্তমান পর্যন্ত এখনো পর্যন্ত নারীরাই দেখতে গেলে ইতিহাস থেকে শুরু করে সকল রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে নিজেদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভাবে চতুর্দিকে বিছিয়ে রেখেছেন। যদিও নারীকে আমরা অবমাননা এবং অত্যাচারের মধ্যেই লাঞ্ছিত অবস্থায় পুরুষের হাতে দেখতে অভ্যস্ত তবুও এই নারী শক্তি ছাড়া আজ পর্যন্ত পৃথিবীতে কোন কিছুই সম্ভব নয়।

স্বপ্নের উড়ান শুরু ব্যাঙ্গালুরুর বুকে ~ “Heli Taxi” পরিষেবা চালু হল উদ্যান-নগরীতে

আড়াই ঘন্টার রাস্তা ১৫ মিনিটে পৌঁছাবে সে। সকাল ছয়টায় বেঙ্গালরুতে উঠল এই হেলির ট্যাক্সে,পাঁচ জন যাত্রী নিতে আকাশ পথে হেলিক্যাপ্টার সদৃশ যাত্রা

একাধিক পথ-কুকুরকে পিটিয়ে মেরে সদর্প আস্ফালন খুনিদের – নির্লজ্য অমানবিকতা বাঁকুড়ার “প্রান্তিকা”য়

নিজেদের “ডাক্তার” বলে প্রচার করার চেষ্টা, অথচ তাদের বিরুদ্ধেই অবলা পথকুকুরদের  ইঁট-পাথর দিয়ে থেঁতলে মারার অভিযোগ সামনে এলো বাঁকুড়ার ১১নম্বর ওয়ার্ডের “প্রান্তিকা” নামের এলাকায়। মানুষের [বিস্তারিত…]