খবর ২৪ ঘন্টা

তালিকায় না থাকলেও ভোট দেওয়া যেতে পারে, জানালেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার….

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

ওয়েবডেস্কঃ বাংলাদেশ থেকে আসা অবৈধ অভিবাসীদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করার লক্ষ্যে বানানো জাতীয় নাগরিকপঞ্জি থেকে চল্লিশ লক্ষেরও বেশি মানুষের নাম কাটা গেল। বিরোধীদের অভিযোগ, নিজেদের রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার লক্ষ্যে এই মানুষগুলিকে নাস্তানাবুদ করার চেষ্টা করছে বিজেপি।
তবে মঙ্গলবার স্বস্তির খবর শোনালেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ওমপ্রকাশ রাওয়াত৷ তিনি বলেন অসমের জাতীয় নাগরিকপঞ্জিতে যাঁদের নাম নেই, তাঁদের নাম ভোটার তালিকায় থাকলে তাঁরা ভোট দিতে পারবেন। আগামী জানুয়ারি মাসে প্রকাশ করা হবে ভোটার তালিকা। চূড়ান্ত এনআরসি’র তালিকার জন্য নির্বাচন কমিশন অপেক্ষা করবে না৷ অসমে গত তিরিশে জুলাইয়ে প্রকাশ করা এনআরসির চূড়ান্ত খসড়া নিয়ে দেশব্যাপী বিতর্কের মাঝেই মুখ্য নির্বাচনী কমিশনার জানিয়ে দিলেন একথা৷ এর ফলে স্বস্তির নি:শ্বাস ফেললেন অনেকেই৷
২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচন থেকে শুরু করে সব নির্বাচনেই অংশ নিতে পারবেন তাঁরা বলে জানিয়েছেন কমিশনার৷ তাঁর কথায়, চল্লিশ লক্ষ মানুষের নাম কাটা গেল মানেই যে চল্লিশ লক্ষ ভোটার নাম কাটা যাবে, তেমন ভাবনা অপরিণত মস্তিষ্কেরই প্রকাশ।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...