খবর ২৪ ঘন্টা

বিনোদনে শুক্রবার ~ এক ঝলকে ” বলি – হলি – টলি”…

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

ওয়েব ডেস্কঃ  শুক্রবার মানেই স্ক্রিনে চোখ, আর অপেক্ষার বেড়া ভেঙে সিনেমায় ডুব। নতুনের স্বাদটাই তো আলাদা। পছন্দের অভিনেতা আর অভিনেত্রীর চোখে চোখ রাখতে প্রথম দিন প্রথম বড়ো পর্দায় দেখা, এ তো বন্ধুদের কাছে গর্ব করার মতো। বাড়ির টি, ভি তো মুখ “ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে”, তাই তো বড়ো পর্দার খোঁজ। প্রেমিকার হাত ধরে, কিংবা আইনক্সের কোণা বেছে নিয়ে প্রেমের সাথে প্রথম দিনের প্রথম শো “ভোলা যায় নাকি?

আসুন চোখ রাখা যাক ২৩ শে ফেব্রুয়ারি “স্ক্রিনে দুপুরে ” খবর ২৪ এর পাতায় –

Welcome to New York…

আজ প্রথমেই আসি ” Welcome to New York নিয়ে।২২ শে জানুয়ারি ট্রেলারের পর, সলমান খান আর সোনাক্ষী সিনহার জুটি নতুন ভাবে শুভ মুক্তি পেতে চলেছে। “ওয়েলকাম টু নিউইয়র্ক “এই দুই চরিত্রের একক কেমিস্ত্রি। দাবাং আর দাবাং টু দর্শকের মনে এক বিশেষ জায়গা করে নিয়েছিল। সোনাক্ষীর উষ্ণ ঠোঁটের ছোঁয়া আর সুন্দর দেহ ঘিরে সলমান খানের সেই দাবাং এর প্রেমিক স্বামী বহু দিন দর্শক কে ভাবিয়েছে। যুবক যুবতীর মনে রোমান্টিক উষ্ণতার ছোঁয়া দিয়েছে,যা অনায়াসেই মন কেরেছে দর্শক মহলে। কেবল দেখার জন্য দেখা নয়, আসল পাঠকের মতো আসল দর্শক, যিনি সিনেমার মর্ম বোঝেন সেই মন কতটা ছুঁতে পারল সেটাই দেখার।

এই সিনেমায় প্রথমবারের মতো দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করছেন পরিচালক ও অভিনেতা করন জোহার। জীবনের পরিচয় জীবন দিয়েই হয়, কারণ অভিজ্ঞতা তাকে বুঝতে সাহায্য করে। কিছু উচাটন, কিছু দু:খ ছাড়াও কিছু মজার ঘটনার মধ্য দিয়ে সিনেমা এগিয়ে চলেছে। ভ্যালেন্টাইনস ডে, টে সাজিদ ওয়াজিদের সুরে “নয়না ফিসল গয়ি'” গানটি মন কেড়েছে বর্তমান প্রজন্ম কে। ভালোবাসার সাথে রোমান্টিকতা -অনুভূতির ভার আগামী নাকি কেবলই প্রাক্তন তা বোঝা হোক বা না হোক, প্রেমের বসন্তে যে দর্শক মনে শিরশিরে ভাব ধরাবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

 

 ” হিচকি “…

এবার আসা যাক “হিচকি”-তে। ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, সিদ্ধার্থ মালহোত্রার পরিচালনায় ও মনীশ শর্মা , আর আদিত্য চোপড়ার  প্রযোজনায় “হিচকি ” সিনেমাটি যশ রাজ ফিল্মসের  অধীনে মুক্তি পাবার কথা ছিল, কিন্তু ২৩ শে মার্চ পিছিয়ে দেওয়া হলো। কারণ সেদিন রাণী মুখার্জীর জন্মদিন। তাই তিনি এই সিনেমা দিয়ে বছর শুরু করতে চান তাই শেষ মুহুর্তে পিছিয়ে দেওয়া সময়। তাই আশাহত হওয়ার কিছু নেই – বেশ কিছুদিন পর নতুন ভাবে দর্শকের সামনে রাণী মুখার্জী নিজেকে অনন্য ভাবে তুলে ধরবেন, এই অপেক্ষায় দিনগোনা। আর সবুরের ফল মিষ্টি হয় ” এটা সত্য।

“সোনু কে টিটু কি সুইটি”…

প্রাথমিক রিলিজ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র)
পরিচালক: লুভ রঞ্জন
ভাষা: হিন্দি প্রযোজক: লুভ রঞ্জন, ভূষণ কুমার, আরও স্ক্রিনপ্লে: লুভ রঞ্জন, রাহুল মোদি…

ছবিতে মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন কার্তিক আরিয়ান, নুসরত ভারুচা এবং সানি সিং। সোনু আর টিটুর গভীর বন্ধুত্বের মাঝখানে আসে ভালোবাসার অঙ্গীকার নিয়ে সুইটি। সে এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থায় বাচ্ছাদের নিয়ে কাজ করে। তার ব্যবহারে প্রেমে পড়ে সুইটি। সুইটির সকল বিষয়ে এক প্রাঞ্জল ব্যবহার দেখে তার জীবনের আসল রহস্যটা খুঁজতে থাকে সে। আর তা থেকেই গল্পের মোড় ঘোরে। সিনেমার প্রযোজনায়  রয়েছেন গুলশন কুমার, ভূষণ কুমার, লাভ রঞ্জন এবং অঙ্কুর গর্গ।তবে গল্পের বিশেষ চরিত্র আলোক নাথ। ইউটোপিয়ান রোমান্স ভেঙে এবার দ্বন্দ্ব, ব্রেক আপের চেষ্টা , এইভাবে ছবি এগোতে থাকবে। আর শেষটুকুর জন্য সোজা হলে যেতে হবে, তবেই তো দ্বন্দ্বের ফলের ভাগ দর্শক প্রাপ্তি ” এই কথাটা সার্থকতা লাভ করবে।

 

“পরেশান পরিন্দা “…

এবার আসি “পরেশান পরিন্দা ” -য়। এটি একটি আসন্ন রোমান্টিক রোমাঞ্চকর নাটক। অভিনয়ে আছেন – মীরজ শাহ, সাকি সিং, পঙ্কজ কুমার, অবতার সিং ভুয়েলার, রাজা বি চৌহান, কে.পি. সন্ধু, পল্লবী শর্মা, সাদিয়া নাবিলিয়া, রিকি সাপুণ সিং, ডিএস ডেভ, সাহিল সুদ, স্যামি গিল এবং নাজ গিল।

 

চলচ্চিত্রটিতে প্রায় দুইজন অপরিচিত ব্যক্তি, যারা অজ্ঞাতসারে এক রাতে একে অপরের দিকে দৌড়ায়, এবং পরের দিন সকালে উঠে দাঁড়ালে তারা খুব হতাশ হয়ে পড়ে। তাদের কেউই আগের রাতের ঘটনাগুলি মনে করতে পারে না এবং তারা প্রথম স্থানে কীভাবে পৌঁছতে পারে তা স্মরণ করতে পারে না। ছেলে (নীল) গড় মধ্যবিত্ত আইটি পেশাদার এবং মেয়ে (মিনি) কাজ করছে সিডনি এর একটি গ্যাংস্টার পরিবারে। নীলের একটি বান্ধবী আছে এবং তিনি দৃশ্যকল্পের উপর খুব বিরক্ত ছিলেন। পরে নীল জাদুদণ্ড সমাধান করতে অনুরোধ করে, কিন্তু মিনি এর গ্যাংস্টার চাচা বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতি তৈরি করে। তিনি কিছু সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন এবং কিছু ফলাফল আসে এবং তা এক রাতে তার জীবনে পরিবর্তন এনে দেয়।এইভাবে ঘটনা বিবিধ মোড়ে এগোতে থাকে। জীবনের মোড়, প্রেমিকার বুকের উষ্ণতা, প্রেমের আবেদন, জীবনের পরিবর্তন সব মিলিয়ে দর্শককে এক নতুন মোড় দেবে বলে আশা করা যায়।

এবার খোলা যাক ইংরাজী সিনেমার ঝুলি।

অ্যানিহিলেশন…

অনেকেই এই রোজ কার প্রেমের বাইরে বিজ্ঞান, ভৌতিক, আদি ভৌতিক, রহস্য উন্মোচন গ্রহণ করতে চান, আর সেটা করার ইচ্ছা থাকলে দেখা যেতেই পারে, জেফ ভান্ডার মিয়ারের একই নামের উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে অ্যালেক্স গারল্যান্ড লিখিত এবং পরিচালিত একটি আসন্ন বিজ্ঞান কথাসাহিত্য ভৌতিক ফিল্ম। আসুন একটু শিল্পীদের সাথে পরিচিত হওয়া যাক।

এই  চলচ্চিত্রটিতে নাটালি পোর্টম্যান, জেনিফার জেসন লেইগ, গিনো রদ্রিগেজ, টেসা থম্পসন, টুভা নোভোনি এবং অস্কার আইজাক অভিনয় করেছেন। মূলতঃ, এখানে সৈন্যদলের একটি গ্রুপ একটি পরিবেশগত দুর্যোগ অঞ্চল প্রবেশ করে এবং শুধুমাত্র একটি সৈনিক (অস্কার আইজাক) জীবিত অবস্থায় ফিরে আসেন, কিন্তু তিনি গুরুতর ভাবে আহত হন। তাঁর জীবন বাঁচানোর একটি প্রচেষ্টা করা হয়।

আর সেই প্রচাষ্টায় তার স্ত্রী লেনা (নাটালি পোর্টম্যান), একজন জীববিজ্ঞানী, স্বেচ্ছাসেবক জানতে চেষ্টা করেন যে,অভিযানের সময় তার সঙ্গে ঠিক কি কি ঘটেছে। পরে যে তথ্য পাওয়া যায়, তা প্রকৃতির নিয়ম বিরুদ্ধ। এইভাবে রহস্যে মোড়কে ভৌতিক আবেদনে ছবিটি গড়ে উঠেছে। দর্শকের শরীর কতটা উৎসাহের সাথে কেঁপে উঠবে সেটাই দেখার।

 

  ” Mute “…

এবার আসি ” Mute “নিয়ে। ড্যানকান জোন্স পরিচালিত এটি একটি আসন্ন ব্রিটিশ-জার্মান বিজ্ঞান কথাসাহিত্য রহস্য চলচ্চিত্র।
এছাড়াও মাইকেল রবার্ট জনসন সঙ্গে স্ক্রিপ্ট লিখেছেন যারা: তাঁরা হলেন, আলেকজান্ডার স্ক্যার্স গার্ড, পল রুদ্দ এবং জাস্টিন থিরোক্স।

রহস্যময়ভাবে অদৃশ্য যারা, তার জীবনে প্রেমের সন্ধান করেছে, যা পূর্বে হারিয়ে গেছে। আজ থেকে চল্লিশ বছর আগে বার্লিনে লিও বাইলার, একটি নিঃশব্দ বারটেন্ডার, তার নিখোঁজ বান্ধবী, নাদিরহা, অভিবাসীদের শহরে ঢোকার জন্য পথ অনুসন্ধান করে। সেখানে দুই আমেরিকান সার্জন একমাত্র আবর্তক সূত্র। এইভাবে প্লট আবর্তের সূত্রে ক্রমাগত চলতে থাকে। তাই রহস্য পছন্দের বিষয় হলে একবার হলে ঘুরে আসাই যায়। তবে, হারিয়ে যাওয়া প্রেমের নি:শব্দ চেতনাটা কতটা সাড়া ফেলবে তার জন্যই ২৩ শে ফেব্রুয়ারির অপেক্ষা।

এবার বলব বাংলা সিনেমার কথায়।

” হানিমুন “…

গতসপ্তাহের “নূরজাহান ” এর পর এবার ” হানিমুন “। শুভশ্রী গাঙ্গুলি ও সোহম চক্রবর্তী, জুটুতে স্বামী স্ত্রী হিসাবে দেখা যাবে তাঁদের। প্রেমেন্দু বিকাশ চাকির নির্মাণে ‘হানিমুন’ নামে চলচ্চিত্রে এই সেরা দুই। সাধারণ ভাবে শ্রাবন্তীকে, সোহমের সাথীতে দেখা গেলেও এখানে এক নতুন রূপে দর্শকের প্রাপ্তি।

তবে প্রেমের জুটিতে গানের পরশ বাসা বাঁধতে এখন তাঁরা ব্যাংককে। বলতে দ্বিধা নেই সমরেশ বসুর ” ছুটির ফাঁদে” অবলম্বন করে এই সিনেমার অবতারণা।কাজের ব্যস্ততায় হানিমুন না যেতে পারায় বীতশ্রদ্ধ স্বামী স্ত্রীর গোল বাঁধলেই তাঁদের অশান্তি। তবে হাসির খোরাক আছে অনেক। কাজের ফাঁকে গানের জন্য তাঁরা সুটিং – এ ভেনিস ডি ইরিস ও সানসেটে অবস্থান করছে, কাজের সূত্রে নামকরণে বিপিন ও জয়ন্তী তাই প্রেমের মশগুল। গল্পের ঘোর টা এখানেই থাক, পরিবর্তন আসুক – তবে বাকিটুকু হলের জন্যই ছেড়ে দেওয়া থাক।

গল্প কতটা মন কাড়বে তা দর্শক বলবে, তবে স্ক্রিনের পুঁথিতে কিন্তু অনেকটাই দেওয়া হলো,বাকি টুকু ” বৃক্ষ তোমার পরিচয় কিসে? “, ” ফলে “। আর সেই অপেক্ষা কে নিবিড় করে মনে যাপন করা, এরই নাম ” অপেক্ষা “….

শো-টাইম

সৌজন্য: http://www.bollywoodmdb.com

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...