ফেসবুক চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ করবেন জুকেরবার্গ?

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 14
    Shares

চাপ বাড়ছে জুকেরবার্গের ওপর৷ মার্ক জুকেরবার্গকে পদত্যাগের জন্য চাপ দিচ্ছেন লগ্নিকারীরা। সম্প্রতি আমেরিকার একটি সংবাদপত্রের তদন্ত রিপোর্টে এমনই তথ্য প্রকাশ্যে এসেছে৷ জোনাস ক্রোন নামে এক বিনিয়োগকারী বলেছেন, ফেসবুক একটি কোম্পানি। আর কোম্পানির চেয়ারম্যান এবং সিইও–র পদ আলাদা হওয়া বাঞ্চনীয়। নাতাশা ল্যাম্ব নামে আরেক বিনিয়োগকারী বলেছেন, চেয়ারম্যান এবং সিইও একই ব্যক্তি থাকার অর্থই হল কোম্পানির ভিতরের কোনও দুর্নীতির সমস্যা সহজেই এড়িয়ে যেতে পারবে। ‘‌ডিফাইনার্স পাবলিক অ্যাফেয়ার্স’–এর সম্পর্কে অভিযোগ, তারা ফেসবুকের সমালোচকদের কটাক্ষ করেছে এবং প্রতিদ্বন্দ্বী কোম্পানিগুলিকে সমালোচনা করে সংবাদ ছেপেছে।
যদিও ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা জুকেরবার্গ অবশ্য ‘‌ডিফাইনার্স পাবলিক অ্যাফেয়ার্স’–এর বিষয়ে আগে থেকে কিছু জানার কথা সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন। ফেসবুকের সিওও শেরিল স্যান্ডবার্গও জুকেরবার্গের সুরেই সুর মিলিয়ে বলেছেন, তাঁরা ‘‌ডিফাইনার্স পাবলিক অ্যাফেয়ার্স’ সম্পর্কে কিছুই জানতেন না। উল্টে ফেসবুকের তরফে সাফাইয়ে বলা হয়েছে, তারা কাউকে আক্রমণ করতে কিছু করেনি। বরং ফ্রিডম ফ্রম ফেসবুক নামক তৃণমূল স্তরের প্রচারের জন্যই ওই মার্কিন কোম্পানির সহায়তা নিয়েছিল।
সূত্রের খবর জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়র্কিং সাইটটি রিপাবলিকান পার্টির এক সদস্যের মালিকানাধীন কনসাল্টিং ও পিআর কোম্পানি ‘‌ডিফাইনার্স পাবলিক অ্যাফেয়ার্স’‌–কে ভাড়া করেছিল নিজেদের প্রতিদ্বন্দ্বী কোম্পানিগুলির খবরাখবর নিতে এবং সমালোচকদের ব্যাপারে জানতে। সেই রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসার পরেই এই তথ্য বেরিয়ে এসেছে৷

 

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 14
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~