রাস্তা দিয়ে বয়ে গেল চকোলেটের নদী!

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 7
    Shares

জার্মানির ওয়ের্ল স্টেটের ওয়েস্টোনেন শহরের ড্রেইমেইস্টার চকোলেট কারখানার একটি ট্যাঙ্ক উপচে প্রায় এক টন তরল চকোলেট নদীর আকারে বইতে শুরু করেছিল ওয়েস্টস্ট্র‌্যাসের রাস্তা দিয়ে। কিন্তু তরল চকোলেট বাইরে আসতেই ডিসেম্বরের কনকনে ঠান্ডায় তা জমাট বেঁধে যায়। রাস্তার উপর প্রায় দু’‌কিলোমিটার জুড়ে ওইরকম জমাট বাঁধা চকোলেটের নদীকে দেখতে লাগছিল ঠিক যেন একটি ১০ বর্গমিটার চওড়া চকো প্যানকেক।
প্রথমে রাস্তা দিয়ে বইছিল তরল চকোলেটের নদী। কিন্তু মিষ্টিপ্রেমীদের এককণার স্বাদও না দিয়ে সেই চকোলেট নদীর ঠাঁই হল ডাস্টবিনে।এধরনের দুর্ঘটনার ফলে এলাকায় ট্র‌্যাফিক পরিষেবা প্রচন্ডভাবে বিঘ্নিত হয়েছিল। সেজন্য ওই চকোলেট কারখানাকে সতর্কও করেছে পুলিস এবং দমকল। তবে ড্রেইমেইস্টার চকোলেট কারখানার সিইও মার্কাস লুকি চকোলেটপ্রেমীদের আশ্বস্ত করে বলেছেন, ওই ঘটনার ফলে কোম্পানিতে বড়রকম ক্ষতি হলেও ক্রিসমাসের মিষ্টিমুখে কোনও সমস্যা হবে না। ‌‌
ওয়ের্ল দমকল দপ্তরের তরফে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, দুর্ঘটনাবশত ড্রেইমেইস্টার কারখানায় এই ঘটনা ঘটেছে৷ চকোলেটের নদী দেখতে এবং চকো প্যানকেটেক স্বাদ পেতে রাস্তার ধারে ভিড় জমান মিষ্টিপ্রেমীরা।কিন্তু তাঁদের যাবতীয় আশায় জল ঢেলে পুরো এলাকাটা ঘিরে দেন পুরকর্মী, দমকল এবং পুলিস। প্রায় দু’‌ঘণ্টা ওই রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ রেখে বেলচা, শাবল, গাঁইতি, গরম জল এবং ব্লো–গান দিয়ে জমাট বাঁধা চকোলেট খুঁড়ে তোলেন দমকল এবং পুরকর্মীরা। মিষ্টিপ্রেমীদের করুণ চোখের সামনেই তারপর ওই বিপুল পরিমাণ চকোলেট ফেলে দেওয়া হয় ডাস্টবিনে। তাতে বেজায় দু:খ পেয়েছেন মিষ্টিপ্রেমীরা৷

 

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 7
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~