আধার কার্ডের নাম করে আবার জনগণের পকেট কাটতে চলেছে মোদী সরকার

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 89
    Shares

এবার ব্যক্তিগত তথ্য পরিবর্তন করার জন্য ৬০ টাকা করে নেওয়ার প্রস্তাব এল কেন্দ্র থেকে। যে আধার কার্ডের বাস্তবতা এবং প্রয়োজন সম্পর্কে স্বয়ং সুপ্রিম কোর্ট সন্দিহান, সেই আধার কার্ড কেই হাতিয়ার করে “আপনার অধিকার” নাম দিয়ে সাধারণ নাগরিকদের কাছ থেকে সরকার মুনাফা কামাবে। যে দেশে ১৩০ কোটি জনগন সে দেশের সরকার যদি গদিতে বসে ভাবেন তিনি প্রত্যেকের থেকে একটাকা করে নিয়ে ১৩০ কোটি টাকা বানাবেন, যে প্রচেষ্টা বিজেপি গভর্নমেন্ট প্রথম থেকেই করে আসছে। এর আগেও নোট বন্দি, জি এস টি দিয়ে জনগণের থেকে সব রকম উপায় “তোলা” আদায়ের পন্থা কেন্দ্রীয় সরকার নিয়ে এসেছে। ব্যাংকিংয়ের আওতায় সমগ্র জনগণকে এনে একদিকে কো-অপারেটিভ ব্যাংকের আড়ালে কোটি কোটি কালো টাকা সাদা করা হয়েছে অন্যদিকে নিরব মোদি , মেহুল চক্সি মতো চোরদের হাজার হাজার কোটি টাকা ঋণ নিয়ে পালাতে সাহায্য করা হয়েছে। আধার কার্ড নিয়ে বারবার সুপ্রিমকোর্টে মুখ থুবড়ে পড়েছে এই সরকার যেখানে কোনরকম সরকারি সাহায্য পাওয়ার ব্যাপারেই শুধুমাত্র আধার কার্ড কে বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের নিয়ম অনুসারে। সেখানে বারবার ব্যাংক, টেলিকম, ড্রাইভিং লাইসেন্স কে ঠেলে আধার কার্ডের সাথে সংযুক্তিকরন করার চেষ্টা চালাচ্ছে মোদি সরকার। সাধারণ জনগণের ভোটে জিতে আসা সরকার আজ সাধারণ জনগণকে হাতে পায়ে বেড়ি পড়াতে চায় সেই আধার কার্ডের মাধ্যমে। এবার আধার সংযুক্তিকরণ এর পাশাপাশি আধারের তথ্য সুরক্ষার কোন ব্যবস্থা না করেই সরকার চাইছে ৬০টাকা করে জনগণের কাছ থেকে তথ্য পরিবর্তন করার জন্য ধার্য করতে। বেনজির এই ব্যাবস্থায় বিক্ষুব্ধ সাধারন মানুষ।

Facebook Comments


শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 89
    Shares

খবর ২৪ ঘন্টা

খবর এক নজরে…

No comments found