কেরলে সন্ন্যাসিনী ধর্ষণে অভিযুক্ত বিশপ ফ্র্যাঙ্কোর পদত্যাগ….

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 14
    Shares

সরে দাঁড়ালেন সন্ন্যাসিনী ধর্ষণে অভিযুক্ত জলন্ধরের বিশপ ফ্র‌্যাঙ্কো মুলাক্কাল। মুলাক্কালের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগকারিণী সন্ন্যাসিনী, মুলাক্কালকে সরানোর জন্য ভ্যাটিকানের হস্তক্ষেপ চেয়ে আবেদন জানিয়ে চিঠি লিখেছিলেন। সেখানে তিনি অভিযোগ করেছিলেন, তাঁর অভিযোগের ব্যাপারে চোখ বন্ধ করে আছে চার্চ। নিজের অপমানের কথা জনসমক্ষে বলে উল্টে চার্চের রোষানলে পড়েছেন তিনি। তাঁর ভাতা, রেশন সব বন্ধ করে দিয়েছে চার্চ। অথচ নিজের পদে বহাল থেকে রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক জোর দেখিয়ে মামলাটি ধামাচাপা দিতে চাইছেন বিশপ। তাঁর অভিযোগ, ২০১৪–১৬ সাল পর্যন্ত মোট ১৩বার তাঁকে ধর্ষণ করেছিলেন মুলাক্কাল। ঘটনাটি কাউকে না বলতে সন্ন্যাসিনীকে হুমকিও দিয়েছিলেন তিনি। কোট্টায়ম জেলার কুরাভিলানগাড়ু থানা এলাকার যে কনভেন্টে থাকেন ওই সন্ন্যাসিনী, সেখানে বিশপ মুলাক্কালের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন নির্যাতিতার ভাই। তার ভিত্তিতেই কুরাভিলানগাড়ু থানা মামলা রুজু করে কোট্টায়মের ডিএসপি কে সুভাষের নেতৃত্বে তদন্তকারী দল গঠন করেছে। বিশপের সঙ্গে নির্যাতিতার একটি ছবি প্রকাশ করে দেওয়ায় শুক্রবারই কেরল পুলিস মিশনারিজ অফ জিজাসের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। মিশনারিজ অফ জিজাসের ধর্মসভা থেকে ওই ছবিটি প্রকাশিত হয়েছিল। মিশনারিজ অফ জিজাসেরই বিশপ মুলাক্কাল এবং ওই সন্ন্যাসিনীর কনভেন্ট। ছবি ছাপা নিয়ে অবশ্য ধর্মসভা উল্টে সংবাদমাধ্যমের উপরই দায় চাপিয়েছে।

তাঁর জায়গায় দায়িত্ব নিয়েছেন বিশপ জে থেক্কুমকাট্টিল এবং বিশপ জে থেক্কাদাথু। শনিবার ভ্যাটিকানকে চিঠি লিখে নিজের সরে দাঁড়ানোর কথা জানিয়ে বিশপ মুলাক্কাল বলেছেন, তাঁকে কেরল যেতে হতে তদন্তকারী অফিসারদের কাছে জেরার জন্য হাজিরা দিতে। ইতিমধ্যেই এব্যাপারে পোপের সঙ্গে আলোচনা করতে ভ্যাটিকান গিয়েছেন ভারতে ভ্যাটিকানের প্রতিনিধি।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 14
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~