ভারী তুষারপাত কাশ্মীরে, বিদ্যুৎহীন অধিকাংশ এলাকা

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 21
    Shares

পূর্বাভাস ছিল৷ সেই মত তুষারপাত শুরু হল উপত্যকা জুড়ে৷ কাশ্মীর আবহাওয়া বিভাগ ৫ নভেম্বর থেকে দুই থেকে তিন সপ্তাহ শুষ্ক আবহাওয়ার পূর্বাভাস দিয়ে ছিল এবং আজ থেকে আবহাওয়ার উন্নতির সম্ভাবনাও জানিয়েছে।
কাশ্মীর উপত্যকাতে ভারী তুষারপাতের কারণে সারা অঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গিয়েছে। শ্রীনগরে তুষারপাতের ফলে রাজধানী থেকে বেশ কয়েকটি বিমানও বাতিল করা হয়েছে। বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা বাতিল বিমানগুলির তালিকা ঘোষণা করে জম্মুতে থেকে বিমান ছাড়ার কথাও ঘোষণা করে দেন। রবিবার সকাল থেকে, রাজ্যের অধিকাংশ জায়গাতেই বিদ্যুৎ নেই।
গতকাল, ভারী তুষারপাতের পর, মুঘল সড়কের পাশে পীর কি গলি থেকে ১২০ জনের বেশি মানুষকে, যাদের মধ্যে বেশিরভাগই ট্রাকচালক, উদ্ধার করা হয়েছিল। উদ্ধার অভিযান চলে রাত্রি ৩টে পর্যন্ত। আধিকারিকেরা জানিয়েছেন যে তাঁরা বিদ্যুৎ সরবরাহ পুনরুদ্ধার করার চেষ্টা করছে কিন্তু কোন লাভই হচ্ছে না। বেশ কয়েকটি হাসপাতাল বিদ্যুৎ সরবরাহ হীন এবং স্কুলেও মোমবাতির আলোতেই পরীক্ষা চলছে শিক্ষার্থীদের।

জম্মু-শ্রীনগর মহাসড়ক সহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক তুষারপাতের ফলে অবরুদ্ধ রয়েছে। তুষারপাতের ফলে সড়ক অবরুদ্ধ হয়ে থাকায় যানজটও দেখা দিয়েছে এবং বেশ কয়েকটি এলাকাও মূল যোগাযোগ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। শ্রীনগরের বেশিরভাগ অংশে রাস্তা বন্যার কবলে। তুষারপাতের ফলে আপেল বাগানেরও বিশাল ক্ষতি হয়েছে। ব্যাপক লোকসানের মুখ দেখছেন আপেল কৃষকরা। আবহাওয়া দফতরের আধিকারিকরা জানিয়েছেন আগামী ১২ থেকে ২৪ ঘণ্টায় আবহাওয়া পরিস্থিতি এমনই চলতে পারে এবং তাপমাত্রা আরও হ্রাসের সম্ভাবনাও রয়েছে।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 21
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~