রাজীব গান্ধীর হত্যায় তাদের সংগঠনের কোনও যোগ নেই : এলটিটিই

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 12
    Shares

ভারতের প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর হত্যার সঙ্গে তারা কোনওভাবেই জড়িত নয়। তাদের কোনও দিনই ভারত বা ভারতীয় নেতানেত্রীদের উপর হামলার মানসিকতা ছিল না। শ্রীলঙ্কার বাসিন্দা নয় এমন কারও বিরুদ্ধে তারা কখনও অস্ত্র ধরেনি। শ্রীলঙ্কার নেতা নন, এমন কারও বিরুদ্ধে তারা কোনও চক্রান্তও করেনি। ভারতের কোনও নেতার উপরই কখনও হামলা চালায়নি। নিজেদের লেটারপ্যাডে বিবৃতি দিয়ে এই দাবি করেছে নিষিদ্ধ তামিল জঙ্গি সংগঠন লিবারেশন টাইগার্স অফ তামিল ইলাম বা এলটিটিই। ওই বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন সংগঠনের রাজনৈতিক শাখার প্রতিনিধি কুরবুরান গুরুস্বামী এবং আইনি শাখার প্রতিনিধি লতান চন্দ্রলিঙ্গম।
বিবৃতিতে এলটিটিই–র অভিযোগ, তা সত্ত্বেও তাদের বিরুদ্ধে রাজীব হত্যার অভিযোগ মেটেনি। তাদের সংগঠনকে অস্তিত্ব সংকটের মুখে পড়তে হয়েছে এই মানহানিকর অভিযোগের জন্য। এমনকি মুল্লিভাইকালে যে দেড় লক্ষ তামিলভাষীকে হত্যা করা হয়েছিল, অনেকে শুধু রাজীবের হত্যার তুলনায় সেই ঘটনাকে অকিঞ্চিৎকর মনে করেন।
অবিলম্বে রাজীব হত্যার দায় তাদের উপর থেকে তুলে নিতে হবে বলে বিবৃতিতে দাবি জানিয়ে এলটিটিই আশাপ্রকাশ করেছে, যে তাহলেই বিশ্ব দরবারে তাদের উপর চাপানো নিষেধাজ্ঞা উঠবে এবং তাদের মানুষরা নিশ্চিন্তে বাঁচতে পারবে। বিবৃতিতে নিজেদের তামিল ভাষীদের জন্য এবং তাদেরই সংগঠন বলে নিজেদের দাবি করে এলটিটিই বলেছে, তারা দীর্ঘ দিন ধরেই তথ্যপ্রমাণ দিয়ে বলছে এলটিটিই–র দাবি, ইন্দিরার পর রাজীব গান্ধীও তাদের সঙ্গে গোপনে শান্তিপূর্ণ সম্পর্ক রেখেছিলেন। রাজীবের হত্যা পূর্ব পরিকল্পিত। এই চক্রান্তের পিছনে তৎকালীন শ্রীলঙ্কা সরকার এবং অন্যান্য দেশ জড়িত ছিল। ভারতের সঙ্গে তাদের সম্পর্ক খারাপ করার উদ্দেশ্যেই এলটিটিই–কে দায়ী করা হয়েছিল।

Facebook Comments


শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 12
    Shares

খবর ২৪ ঘন্টা

খবর এক নজরে…

No comments found