মালদ্বীপের নতুন প্রেসিডেন্ট, স্বাগত জানাল ভারত….

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 20
    Shares

স্থানীয় সময় সোমবার ভোরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল ঘোষণা করল মালদ্বীপের নির্বাচন কমিশন। চীনপন্থী প্রেসিডেন্ট ইয়ামিনের পরাজয়ের খবরে স্বস্তিতে ভারত। সকালেই দিল্লি থেকে মালে–তে ফোন করে সোলিহ্‌–কে অভিনন্দন জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। মালদ্বীপের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলেন সেদেশের বিরোধী দলনেতা ইব্রাহিম মোহামেদ সোলিহ্‌। ৫৮.‌৩ শতাংশ জনপ্রিয় ভোটে তিনি হারিয়েছেন আবদুল্লা ইয়ামিনকে। প্রিয় নেতার জয়ের খবর আসার সঙ্গে সঙ্গেই আনন্দে মেতে ওঠেন সোলিহ্‌ সমর্থকরা। সোলিহ্‌–র দল মালদ্বীভিয়ান ডেমোক্র‌্যাটিক পার্টি বা এমডিপি–র হলুদ রঙা পতাকা হাতে মিছিল করেন কর্মী, সমর্থকরা। জয়ের খবর পাওয়ার পরই টিভি বার্তায় সোলিহ্‌ ইয়ামিনকে আবেদন করেন, মানুষের রায় মেনে নিয়ে যেন সসম্মানে তিনি নিজের পদ ছেড়ে দেন। ভারত মহাসাগরে নিজেদের আধিপত্য কায়েম করতে দীর্ঘদিন ধরেই মালদ্বীপের সঙ্গে সখ্যতা বজায় রেখেছে ভারত এবং চীন। ফলে এই ভোটের উপর নজর ছিল দিল্লি এবং বেজিং–এরও। চীনের সঙ্গে ইয়ামিনের বন্ধুত্ব নিয়ে শঙ্কিত আমেরিকা এবং রাষ্ট্রপুঞ্জ হুঁশিয়ারিও দিয়েছিল, নির্বাচনে কোনও গণ্ডগোল বা জালিয়াতি হলে মালদ্বীপের উপর নিষেধাজ্ঞা চাপানো হবে।
রবিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত চলে ভোটদান। মোট ৮৮ শতাংশ ভোট পড়েছিল বলে জানায় নির্বাচন কমিশন। সোলিহ্‌–র জয়ের খবর পেয়েই নির্বাসনে থাকা এমডিপি–র প্রধান তথা মালদ্বীপের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট মোহামেদ নাশিদ প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এই ভোটের ফলেই দেশে ফের গণতন্ত্র ফিরবে। ইয়ামিনকে কটাক্ষ করে নাশিদ বলেন, তাঁকে ক্ষমতায় টিকিয়ে রাখার মতো সমর্থক এবার হারাবেন ইয়ামিন। পরাজিত প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট আবদুল্লা ইয়ামিন ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ করেছেন। ৫৯ বছরের ইয়ামিন ফের ক্ষমতায় ফেরার লক্ষ্যে জোরদার প্রচার চালিয়েছিলেন। এমনকি ভোটের পূর্ববর্তী এবং পরবর্তী সমীক্ষাতেও তাঁকেই বিজয়ী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছিল। এমনকি নির্বাচনের আগেও ইয়ামিন নিজের হাতে ক্ষমতা ধরে রাখতে যে কোনও উপায় নিতে পারেন বলে সতর্কতা ছিল।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 20
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~