ধর্মের নামে দাদাগিরি করতে নেমেছে বিজেপি’

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

 

‘‌বিজেপি আসলে রাম নয় রাবণের পুজো করে। রামের পুজো আসলে লোক দেখানো। গোটা দেশজুড়ে শ্রী রামের স্লোগান তুলছে ওরা। ওদের শ্রী রাম থাকলে আমাদের মা দুর্গা রয়েছে। মা দুর্গার পুজো শ্রী রামচন্দ্রও করেছিলেন।’ঝাড়গ্রামের জামবনিতে সরকারি অনুষ্ঠানে এসে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। সোমবার জামবনির অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী নাম না করে বিজেপিকে তুলোধনা করেন। মমতা ব্যানার্জি রাম মন্দির ইস্যু নিয়ে বলেন, ‘‌ওদের শ্রী রাম থাকলে, আমাদের মা দুর্গা আছে’‌‌। মমতা ব্যানার্জি এদিন বিজেপি–সিপিএমকে একসঙ্গে নিশানা করে বলেন, ‘‌গত ৩৪ বছর ধরে সিপিএম বাংলাকে সর্বস্বান্ত করেছে। সেই দেনা শোধ করছে আমাদের সরকার। সিপিএম সকালে লাল জামা পড়ে আর বিকেলে হাত ধরে বিজেপির। বিজেপি দেশজুড়ে ধর্মীয় উস্কানি দিচ্ছে।’‌ মুখ্যমন্ত্রী ঝাড়গ্রামে কন্যাশ্রী ও যুবকদের উদ্দেশ্যে জানান, যারা বিভাজনের রাজনীতি করছে তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।
মুখ্যমন্ত্রী জানান, বিরোধী আসনে থাকাকালীন তাঁকে শুনতে হয়েছে তিনি পিঁপড়ে সিদ্ধ খেয়ে থাকেন। তাই ক্ষমতায় আসার পরই তিনি ২ টাকা কেজি দরে চাল পাওয়ার ব্যবস্থা করে দেন। কিন্তু তাঁর কাছে অভিযোগ এসেছে, ওই চাল কিনে কেউ কেউ তা বিক্রি করে দিচ্ছেন। তিনি জানান, আদিবাসীদের জন্য রাজ্য সরকার সব ধরনের উন্নয়ন করেছে। ঝাড়খণ্ডে জমি দখল হয়ে যায় কিন্তু ঝাড়গ্রামে হয় না। কারণ এখানে আদিবাসী জমি দখল রক্ষা আইন তৈরি করেছে রাজ্য সরকার।
তিনি আরও বলেন, ‘‌বিজেপি ছত্তিশগড়ে মাওবাদীকে দমন করতে ব্যর্থ হয়েছে। ঝাড়খণ্ড থেকে মাওবাদী এনে এ রাজ্যে গণ্ডগোল সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে বিজেপি। ধর্মের নামে দাদাগিরি করতে নেমেছে বিজেপি। শুধু তাই নয় ভোটের আগে কেউ কেউ বিভাজন রাজনীতি করতে চায়। কিন্তু এ রাজ্যে তা হবে না।’‌ মুখ্যমন্ত্রী জানান, ঝাড়গ্রামে ভোটের আগে কেউ কেউ টাকা নিচ্ছে বিজেপির হয়ে প্রচার করার জন্য। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌টাকা নিন, কিন্তু ভোট দেবেন না। ঝাড়গ্রামে যখন কোনও উন্নয়ন ছিল না, কোথায় ছিল এই গেরুয়া দল। এখানে দিনের পর দিন মানুষ না খেতে পেয়ে মারা যেত, তখন কোনও দল এগিয়ে আসেনি।’‌

Facebook Comments


শেয়ার করুন সকলের সাথে...

খবর ২৪ ঘন্টা

খবর এক নজরে…

No comments found