কংগ্রেসের সঙ্গে জোট বাঁধতে চলেছে মায়াবতীর দল ? ইঙ্গিত সেদিকেই

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

বুধবার কংগ্রেসের সাফল্য দেখার পর বহুজন সমাজ পার্টির প্রধান মায়াবতী জানিয়েছেন, মধ্যপ্রদেশ এবং রাজস্থানে বিজেপি শাসনকে খতম করতে কংগ্রেসকে সমর্থন করবে বিএসপি। মধ্যপ্রদেশ এবং রাজস্থানে বৃহত্তম দল হলেও একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি কংগ্রেস। একসময় এই জানিয়ে ছিলেন তিনি কংগ্রেসের সঙ্গে জোট বাঁধতে ইচ্ছুক নন। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি অন্য কথাই বলছে। তিন রাজ্যে বিজেপির অস্তিত্বকে প্রায় শেষ করে দিয়েছে কংগ্রেস। তবে কংগ্রেসকে সমর্থন জানানোর পাশাপাশি মায়াবতী কংগ্রেসের সমালোচনা করতেও ছাড়েননি। সাংবাদিক বৈঠকের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মায়াবতীর বক্তব্য একটাই ছিল। না কংগ্রেস, না বিজেপি, দলিত তথা অবহেলিত মানুষের জন্য কোনও দলই ভাবেনা। কংগ্রেসের ৭০ বছরের শাসনকালেও দলিতরা অবহেলিত ছিল, বিজেপির চার বছরে তাঁরা আরও অবহেলিত। বিএসপি সুপ্রিমো বলেন, ‘‌৭০ বছরের শাসনকালে কংগ্রেস দলিতদের কথা ভাবেনি, বাবাসাহেব আম্বেদকরের আদর্শ মানেনি। আর সেজন্যেই আজ বিএসপির মতো আলাদা দল তৈরির প্রয়োজনীয়তা পড়েছে। আমার মনে হয় না, কংগ্রেসেরও দলিতদের উন্নতি করার সদিচ্ছা আছে।’‌ এতদূর পর্যন্ত শোনার পর হয়তো কংগ্রেস নেতৃত্বের রক্তচাপ বেড়ে গিয়েছিল। কারণ, মধ্যপ্রদেশ এবং রাজস্থানে সরকার গড়ার জন্য মায়াবতীর দলের সমর্থন তাদের প্রয়োজন। বিশেষ করে মধ্যপ্রদেশে, কারণ শিবরাজের রাজ্যে এখনও লড়াইয়ে আছে বিজেপি। তবে মায়াবতী এও জানিয়েছেন যে কংগ্রেস যদি শাসক হিসাবে ভাল হয়, বিজেপিকে তাহলে আর কোনওভাবেই দরকার নেই।

বিএসপি প্রধান সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, ‘‌আমাদের লক্ষ্য হল বিজেপিকে ক্ষমতাচ্যুত করা। আর সে কারণেই আমরা ঠিক করেছি যে মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেসকে সমর্থন করব।’‌ এ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ২৩০টি আসনের মধ্যে বিএসপি দু’‌টি আসনে জয়লাভ করেছে। অন্যদিকে কংগ্রেস মধ্যপ্রদেশে বৃহত্তম দল হলেও ১১৪টি আসনে জয়লাভ করেছে এবং বিজেপির ভাগ্যে জুটেছে ১০৯টি আসন। মায়াবতী আরও বলেন, ‘‌রাজস্থানেও আমরা কংগ্রেসকে সমর্থন করব। আমরা এই নির্বাচনে লড়ে বিজেপিকে দেখিয়ে দিয়েছি যে ২০১৯ সালের নির্বাচনে তারা কখনই আর ক্ষমতায় আসবে না।

Facebook Comments


শেয়ার করুন সকলের সাথে...

খবর ২৪ ঘন্টা

খবর এক নজরে…

No comments found