গণপিটুনির ভয়ে দেশে ফিরতে চাইছেন না মোদি!

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 36
    Shares

তিনি দেশে ফিরলে তাঁকে গণপিটুনি দেওয়া হতে পারে। এই আশঙ্কা নিয়ে দেশে ফিরতে চাইছেন না পলাতক হীরে ব্যবসায়ী নীরব মোদি৷ নীরব মোদির নিরাপত্তার অভাব বোধের বিষয়টিকে গুরুত্ব না দিয়ে ইডি জানায় যে এই বিষয়টি মামলার সঙ্গে কোনওভাবেই জড়িত নয়। এর আগেও নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে ভারতে আসতে চান না বলে চিঠি লিখে তদন্তকারী সংস্থাদের জানিয়েছিলেন মোদি৷ তাতে তিনি প্রাণনাশের আশঙ্কাও করেছিলেন৷ লিখেছিলেন, মুম্বইতে ৫০ ফুট লম্বা কুশপুতুল বানিয়ে তা পোড়ানো হয়েছে৷ এতে তিনি আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন৷ বিভিন্ন এজেন্সি তাঁকে তাড়া করে বেড়াচ্ছে৷ এতে তাঁর নিরাপত্তা, সম্পত্তি সবকিছুকে বিপদের মুখে ঠেলে দিয়েছে৷ এখনোও বিচার শুরুও হয়নি তার আগেই তাঁকে অপরাধী বলে গণ্য করা হচ্ছে। যদিও ইডির দাবি, তাদের পক্ষ থেকে এর আগেও নীরব মোদিকে মেল এবং সমন পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু মোদি জানিয়েছিলেন যে তিনি ভারতে ফিরতে রাজি নন।
ভাগ্নের মতো মামা মেহুল চোকসিও জুলাই মাসে ভারতে না আসার কারণ হিসাবে গণপিটুনিকে হাতিয়ার করেছিলেন৷ তিনি জানিয়েছিলেন, ভারতে গণপিটুনির ঘটনা প্রচুর ঘটছে৷ দেশে ফিরলে তাঁকেও জনতার রোষে পড়তে হতে পারে৷ তাই দেশে তিনি ফিরতে চান না৷ প্রসঙ্গত পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের কয়েক হাজার কোটি টাকার প্রতারণার অভিযোগ সামনে আসার পরই দেশ ছেড়ে পালান মামা–ভাগ্নে৷ পরে জানা যায় অ্যান্টিগুয়ার নাগরিকত্ব নিয়েছেন মেহুল৷ আর নীরব রয়েছেন লন্ডনে।
তবে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট মোদির গণপিটুনির ভয়ের দাবিকে নস্যাৎ করে আদালতকে জানিয়েছে, তিনি যদি নিরাপত্তার অভাব বোধ করে থাকেন তবে তাঁর পুলিসের কাছে যাওয়া উচিত ছিল। অর্থ পাচার প্রতিরোধ আইনে নীরব মোদিকে পলাতক আর্থিক অপরাধী বলে ঘোষণার দাবিতে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে ইডি৷ সেই দাবির বিরোধিতায় এদিন আদালতে দাঁড়িয়ে নীরব মোদির আইনজীবী জানান, তাঁর মক্কেল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছিলেন৷ তারপরেও তাঁকে আর্থিক অপরাধী পলাতক বলা ভুল হবে৷ নীরব মোদির কাছে ইডির আধিকারিকরা কিছু তথ্য চেয়েছিলেন৷ কিন্তু তখন তিনি সেই তথ্য দেওয়ার মতো অবস্থায় ছিলেন না৷ কারণ তাঁর অফিস সিল করে দিয়েছিল ইডি৷ কর্মীদের নিজেদের হেফাজতে নিয়ে কম্পিউটারগুলিও বাজেয়াপ্ত করে দেওয়া হয়েছিল। তাঁর কাছে তাঁর অর্থ সম্পর্কিত কোনও রেকর্ড বা তথ্য নেই। শনিবার তাঁর আইনজীবী বিশেষ আদালতকে তাঁর এক চিঠি জমা দিয়ে এ কথা জানিয়েছেন।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 36
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~