মোদী ম্যাজিক থাকবে না ২০১৯ সালে? চিঠি বিজেপি নেতার

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 23
    Shares

দলের অন্দরে বোমা ফাটিয়ে দিলেন প্রবীণ বিজেপি নেতা সংঘপ্রিয় গৌতম। সংঘপ্রিয় গৌতম দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে একটি চিঠি লিখেছেন। শোরগোল শুরু হয়েছে সেই চিঠি নিয়েই। চিঠিতে দাবি করা হয়েছে, নীতীন গডকরিকে উপ–প্রধানমন্ত্রী ও শিবরাজ সিংকে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি করা হোক। তবেই দল চাঙ্গা হবে। তাহলে অমিত শাহের কী হবে? গৌতমের দাবি, অমিত শাহ রাজ্যসভায় দলের হয়ে লড়াই করুন। পাশাপাশি অটলবিহারী বাজপেয়ীর আমলের কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর আরও পরামর্শ যোগী আদিত্যানাথকে ধর্মকর্ম নিয়েই থাকতে দেওয়া হোক। আর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী করে দেওয়া হোক। এতেই দলের মঙ্গল হবে। তাঁর কথায়, কেন্দ্রের নীতির জন্য দেশে এমন অবস্থা যে এখনই কোনও নির্বাচন হলে বিজেপি কোণঠাসা হয়ে যাবে। পরিকল্পনা কমিশন থেকে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক, সিবিআইয়ের কাজে হস্তক্ষেপেরও সমালোচনা করেছেন গৌতম। গৌতমের আশঙ্কা ২০১৯ সালে আর মোদি ঢেউ বলে কিছু থাকবে কিনা। কেন্দ্রীয় সরকারের নীতি নিয়েও মন্তব্য করেছেন তিনি।
রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন তিন রাজ্যে শোচনীয় পরাজয়ের ধাক্কা সামলে লোকসভা নির্বাচনের জন্য সংগঠনকে মজবুত করতে কোমর বেঁধে নেমেছে বিজেপি। তার মধ্যেই দলে সক্রিয় হয়ে উঠেছে অন্য একটি গোষ্ঠী। খোদ নীতীন গডকরিও দলের হারের দায় নেতাদের ওপরে চাপাতে চেয়েছেন। এমন অবস্থায় নরেন্দ্র মোদিকে দলের সবচেয়ে প্রভাবশালী নেতা হিসেবে মেনে নিয়েও সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘‌আগামী লোকসভা নির্বাচনে মোদি ম্যাজিক কাজ করবে কিনা সন্দেহ। এই নিয়ে দলের কর্মীরা চিন্তিত। এমনকী এই নিয়ে ফিসফাস চলেছে দলের অন্দরে।’‌

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 23
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~