খবর ২৪ ঘন্টা

মহা নবমীর মহা ভোজ – রেসিপি

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

আজ শুভ নবমী তিথি। আজকের তিথিটির একটি আলাদা গুরুত্ব রয়েছে।  ষষ্ঠীতে থাক নতুন ছোঁয়া সপ্তমী হোক শিশির ধোয়া অঞ্জলি দাও অষ্টমীতে আড্ডা জমুক নবমীতে। আপনাদের 

 বাসন্তী পোলাও 

উপকরণ

প্রণালী

২ কাপ গোবিন্দ ভোগ চাল ধুয়ে  জল ঝরার জন্য ছাকনিতে রেখে দিন ।

হাঁড়িতে  তিন  কাপ জল দিন ।

জল  ফুটতে  শুরু করলে আদা কুচি ও গোটা  গরম মশলা দিন ।

এবার  চাল দিয়ে দিন ।

২  চামচ  ঘি  , এক চা চামচ হলুদ ও  চিনি দিয়ে  ঢেকে দিন ।

গ্যাসের আঁচ একদম কমিয়ে দিন ।

৭/৮ মিনিট  পর    দেখবেন চাল কতটা সেদ্ধ হয়েছে ।

কাজূ , কিসমিস ও নারকেল কুচি দিন ।

৫ মিনিট পর ঢাকনা  খুলে  নিন ।

তৈরি আপনার বাসন্তী পলাও

মাছের কাবাব

 

উপকরণ

প্রণালী

মাছের  টুকরো গুলি  পরিস্কার করে ধুয়ে নুন ,  ধনে পাতা , লেবুর রস  দিয়ে সেদ্ধ করে নিন।

ঠান্ডা হলে মাছের কাটা বেছে নিয়ে কিমা করে নিন।

আলু সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে ভাল ভাবে মেখে  নিন।

একটি  পাত্রে পেঁয়াজ  কুচি, কাচাঁ লঙ্কা কুচি , ধনেপাতা কুচি , সামান্য হলুদ  সব  একসাথে   স্বাদমত নুন  দিয়ে মেখে নিন ।

মাছের কিমা , আলু  সেদ্ধ , ভাজা মশলা গুঁড়ো  ,গরম মশলা গুঁড়ো  , আদা ও  রসুন বাটা , শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো , গোলমরিচের গুঁড়ো   এক সাথে ভাল করে মেখে নিন ।

একটি  ডিম ফেটিয়ে  তাতে দিয়ে  দিন ।

এবার মিশ্রণ থেকে পরিমান মত নিয়ে  আপনার পছন্দ মত কাবাব বানিয়ে নিন।

সবগুলি  বানানো হলে ফ্রিজে ২০/ ২৫ মিনিট সেট হতে রেখে দিন  ।

একটি ডিম ফেটিয়ে তাতে একটু নুন ও গোলমরিচের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন ।

তাতে কাবাব ডুবিয়ে ব্রেড ক্র্যাম্বস  দিয়ে কোট করে  নিন ।

একই  পদ্ধতিতে  সবগুলি কাবাব বানিয়ে  নিন।

আবার ফ্রিজে রাখুন ২০/ ২৫ মিনিট ।

একটি  কড়াইতে  তেল বসিয়ে  দিন ।

ফ্রিজ থেকে বের করে  ডুবু তেলে সোনালি রঙ করে ভেজে  নিন ।

গ্যাসের আঁচ কমিয়ে ভাজবেন ।

পেপার টিস্যুর উপর রাখুন যেন অতিরিক্ত তেল টেনে নেয়।

তৈরি আপনার জিভে জল আনা মাছের কাবাব

 

চিংড়ি রোষ্ট

উপকরণ

প্রণালী

চিংড়ি মাছ ধুয়ে খোসা ছড়িয়ে রেখে দিন ।

একটি  বাটিতে পেঁয়াজ বাটা , সর্ষে বাটা, গোলমরিচ গুঁড়ো , কিসমিস বাটা  কাঁচা লঙ্কা বাটা , শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো ,নুন ,  ২ চামচ সর্ষের তেল , আদা ও রসুন বাটা  এক সঙ্গে মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করে নিন ।

কড়াইতে ২ / ৩ চামচ তেল দিয়ে  ১ চিমটি চিনি  দিন ।

এইবার এক এক করে চিংড়ি মাছ গুলি দিয়ে দিন ।

বাটিতে রাখা বাকি মশলা গুলি  মাছের উপর দিয়ে ঢেকে দিন ।

৫/ ১০ মিনিট পর মাছগুলি উল্টে দিন ।

চিংড়ি মাছগুলি  সেদ্ধ হয়ে গেলে এক চামচ ঘি  দিয়ে নেড়েচেড়ে  নামিয়ে নিন। তৈরি  আপনার  চিংড়ির রোষ্ট

ইলিশ দমপোক্ত

উপকরণ

প্রণালী

ইলিশ মাছ গুলি ধুয়ে লাতি লেবুর রস মাখিয়ে রেখে দিন ।

কড়াইতে তেল গরম করে তাতে এলাচ ফোড়ন দিন।

পেঁয়াজ ও আদা বাটা দিয়ে লাল করে ভেজে নারকেল দুধ ,  চিনি , নুন ও কাঁচা মাছগুলি দিয়ে  ঢেকে দিন ।

গ্যাসের আঁচ একদম কমিয়ে রাখবেন ।

১০ /১৫ মিনিট পর ঢাকনা উঠিয়ে এক চামচ ঘি ছড়িয়ে  নামিয়ে নিন ।

তৈরি আপনার  ইলিশ মাছের  দম পোক্ত

মাটন ডাক বাংলো

উপকরণ

প্রণালী

মাটন ধুয়ে নুন, হলুদ ,আদা ও রসুন বাটা ,২ চামচ তেল দিয়ে মেখে ৩০ মিনিট রেখে দিন । 

 সেদ্ধ ডিম  নুন ও হলুদ   মাখিয়ে ভেজে  রেখে দিন ।

এবার কড়াইতে তেল দিন ।

তেজ  পাতা ও গোটা গরম মশলা ফোড়ন দিন । 

পেঁয়াজ কুচি  ও বাকি আদা রসুন বাটা  এবং টমেটো কুচি দিয়ে দিন ।

পেঁয়াজ বাদামী রং হলে মাটন দিয়ে নেড়েচেড়ে কষতে দিন ।

গ্যাসের আঁচ মিডিয়াম রাখবেন ।   

জল ঝড়াণ টক দৈ  ও কাজু পেস্টের সাথে ২ চামচ চিনি দিয়ে ভালো করে  ফেটিয়ে মাটনে দিয়ে দিন ।

এক কাপ গরম  জল দিন ।  

মাটন সেদ্ধ হয়ে গেলে জায়ফল ও জয়িত্রী  বাটা ও গরম মশলা গুঁড়ো  দিয়ে  কিছুক্ষণ নেড়ে নামিয়ে নিন ।  

 তৈরি আপনার মাটন ডাক বাংলো ।  

ভেজে রাখা সিদ্ধ ডিম দিয়ে পরিবেশন  করুন  মাটন ডাক বাংলো 

কাঁচা আমের চাটনি

 

উপকরণ

প্রণালী

চামড়াসহ কাঁচা আম কেটে নিন ।

কড়াইতে  ২ চামচ তেল দিন ।

গোটা  শুকন লঙ্কা ও সর্ষে ফোড়ন দিয়ে কাচা আমগুলি দিয়ে দিন ।

নুন, হলুদ ও এক কাপ চিনি দিন ।

ভালো করে নেড়ে দু কাপ জল দিয়ে ঢেকে দিন।

আম  সেদ্ধ হয়ে গেলে ভাজামৌরী গুঁড়ো  দিয়ে দিন ।

তৈরি কাঁচা  আমের টক / চাটনি

ছানার পায়েস

 

উপকরণ

প্রণালী

গ্যাসে একটি  পাত্রে  মিডিয়াম আঁচে  দুধ  বসিয়ে দিন ।

এবার ছানাটাকে ভালো করে মেখে তা থেকে ছোটো ছোটো গোল গোল বল তৈরি  করুন ।

দুধ গাঢ়হলে তার মধ্যে ছানার বলগুলি হাল্কা আঁচে ফুটতে দিন।

ভালোভাবে ফুটলে এর মধ্যে চিনি দিয়ে  আস্তে আস্তে নাড়তে থাকুন।

একটি বাটিতে  কয়েক দানা  জাফরান মিশিয়ে রাখুন ।

এবার দুধের মধ্যে এলাচ থেঁতো করে দিন ও নাড়তে থাকুন ।

দুধ গাঢ় হয়ে  এলে জাফরান  মিশানো দুধ ও  কন্ডেন্সড মিল্ক দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নামিয়ে নিন ।

কাজু  ও  পেস্তা কুচি ছড়িয়ে দিন ।

এক চিমটি নুন ছড়িয়ে ভালো করে  মিশিয়ে  দিন ।

ঠাণ্ডা হয়ে গেলে ফ্রিজে   ১ থেকে ২ ঘণ্টা  রেখে  দিন।

তৈরি আপনার ছানার পায়েস  ।

ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা পরিবেশন করুন লোভনীয় ছানার পায়েস 

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...