স্বস্তি বাজি ব্যবসায়ীদের, দিল্লি ছাড়া বিক্রি করা যাবে বাজি

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 35
    Shares

একমাত্র দিল্লিতেই শুধুমাত্র ‘‌গ্রীন’‌ বা কম দূষণের বাজি বিক্রি করতে হবে বলে বুধবার জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। দিল্লির বাতাসে দূষণের পরিমাণ কমানোর জন্যই শীর্ষ আদালত এই কড়া নির্দেশ দিয়েছে। তবে দিল্লি এবং তার সংলগ্ন এলাকা বাদ দিয়ে সব রাজ্যে সবরকম আতসবাজি বিক্রি হতে পারে বলে জানানো হয়েছে রায়ে৷ শব্দবাজি ফাটানোয় শুধুমাত্র তামিলনাড়ুর জন্য বিশেষ ছাড় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। সারা দেশে যখন রাত আটটা থেকে ১০টা পর্যন্ত শব্দবাজি ফাটানোর সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে সেখানে তামিলনাড়ুকে বিশেষ ছাড় দিয়ে শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, রাজ্য শব্দবাজি ফাটানোর সময়সীমা নিজের পছন্দমত নির্ধারণ করতে পারে। তবে সেটা দু’‌ঘণ্টার বেশি কোনওভাবেই করা যাবে না সেকথা জানিয়ে দিয়েছে শীর্ষ আদালত। তামিলনাড়ুতে ৬ নভেম্বর দীপাবলী উৎসব পালন করা হবে।
শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, দিল্লিতে ‘‌গ্রীন’‌ আতসবাজি ছাড়া অন্য কোনও বাজি বিক্রি করা হবে না। এমনকী বাজি প্রস্তুতকারকদেরও ‘‌গ্রীন’‌ আতসবাজি তৈরি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
তবে বাজি প্রস্তুতকারক সংস্থারা জানিয়েছে যে এই মুহূর্তে গ্রীন আতসবাজি তৈরি করা সম্ভব নয় এবং তাই তা বাজারেও পাওয়া যাবে না। নিষিদ্ধ বাজি অনলাইনেও বিক্রি করা যাবে না বলে আগেই সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিয়েছিল।
অন্য দিকে, শীর্ষ আদালত দক্ষিণ ভারতের রাজ্যগুলি সহ পুডুচেরিতে দীপাবলী উৎসব উপলক্ষ্যে বিকেল ৪টে থেকে ৫টা এবং রাত ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত বাজি পোড়ানোর অনুমতি দিয়েছে।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 35
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~