প্রাণভয়ে গুজরাট ছাড়ছেন শ্রমিকরা, কেন? 

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 17
    Shares

গত ২৮ সেপ্টেম্বর হিম্মতনগরের গাম্ভোইয়ে ১৪ মাসের এক শিশুকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগে ওই দিনই রবীন্দ্র সাহু নামে স্থানীয় একটি সেরামিক কারখানার শ্রমিককে গ্রেপ্তার করা হয়। সে বিহারের বাসিন্দা। তারপর থেকেই মেহসানা, সবরকাঁঠা, পাটন, গান্ধীনগর, আহমেদাবাদে বিহার এবং উত্তর প্রদেশ থেকে আসা মানুষদের উপর শুরু হয় মারধর, নিগ্রহ, হামলা। তাঁরা বেশিরভাগই গুজরাটে অস্থায়ী শ্রমিকের কাজ করা দরিদ্র মানুষ। ফলে এখন প্রাণের ভয়ে গুজরাট ছাড়তে শুরু করেছেন বিহার এবং উত্তর প্রদেশ থেকে আসা শ্রমিকরা।
গুজরাটের উপ মুখ্যমন্ত্রী নিতিন প্যাটেল শনিবারই গুজরাট হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি আর সুভাষ রেড্ডিকে চিঠি লিখে ওই মামলায় এক মাসের মধ্যে শুনানি শেষ করে রায়ের আবেদন জানিয়েছেন। হিম্মতনগরের ঘটনা ছাড়া সুরাটের একটি মামলাতেও একই আবেদন জানিয়েছেন প্যাটেল। গুজরাটের কংগ্রেস নেতা অল্পেশ ঠাকোর ভইন রাজ্যের শ্রমিকদের উপর হামলার ঘটনাকে তীব্র নিন্দা করে রাজ্যবাসীকে শান্ত থাকতে আবেদন করেছেন।
গুজরাটের ডিজি শিবানন্দ ঝা বলেছেন, ডিজি জানালেন, এধরনের ঘটনা সম্পূর্ণ অনভিপ্রেত। গত এক সপ্তাহের মধ্যে ১৭০ জন হামলাকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মূলত ভিন রাজ্যের বাসিন্দা অধ্যুষিত সবরকাঁঠায় পুলিসি টহল চলছে। তবে আপাতত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে।
Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 17
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~