পরিস্থিতি অশান্ত অসমে, শনিবারও চলছে বনধ

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 21
    Shares

শুক্রবার গোটা অসম জুড়ে নানা জায়গায় বিক্ষোভ দেখান সাধারণ মানুষ। পথে নেমে টায়ার পুড়িয়ে, রাস্তায় পাথর ফেলে প্রতিবাদ করেন তাঁরা। এমন নৃশংস ঘটনা অনেকেই আগে শোনেননি বলেও জানান। এদিকে, শনিবারও থমথমে অসম। বৃহস্পতিবার রাতে পাঁচজন নিরীহ বাঙালিকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় চলছে ২৪ ঘণ্টার বন্‌ধ। বরাক উপত্যকা, তিনসুকিয়া–সহ গোটা অসমে বন্‌ধের ডাক দেওয়া হয়েছে। সারা ভারত নমঃশূদ্র বিকাশ পরিষদ–সহ রাজ্যের ১৪টি সংগঠনের ডাকা বন্‌ধে স্তব্ধ কাছাড়, করিমগঞ্জ ও হাইলাকান্দি জেলা। বন্ধ দোকান-বাজার-স্কুল-কলেজ ও সরকারি দপ্তর। তবে বন্‌ধের আওতা থেকে জরুরি পরিষেবাগুলি ছাড় দেওয়া হয়েছে। এদিন সকালে বন্‌ধের সমর্থনে কংগ্রেস ও সিপিএম–সহ বেশ কিছু গণ সংগঠনের কর্মীদের মিছিল করতে দেখা যায়। বরাক উপত্যকার পাশাপাশি উজান অসম–সহ গোটা অসমজুড়ে বন্‌ধের ডাক দিয়েছে অল অসম বেঙ্গলি ইয়ুথ স্টুডেন্টস ফেডারেশন। গোটা রাজ্যজুড়ে বন্‌ধে খুব বেশি প্রভাব না পড়লেও থমথমে পরিস্থিতি তৈরি হয়ে রয়েছে। রাস্তাঘাট প্রায় ফাঁকা। পথে উধাও বাস। অশান্তি এড়াতে প্রাণের ঝুঁকি নিতে চাইছেন না অসমের ভূমিপুত্ররাও। তবে, বরাক–সহ কাছাড়, করিমগঞ্জ ও হাইলাকান্দি জেলায় বন্‌ধের প্রভাব লক্ষ্য করা গিয়েছে। এদিকে, অসমে নারকীয় গণহত্যার প্রতিবাদে শনিবার বাংলা জুড়ে কালাদিবস পালন করবে প্রদেশ কংগ্রেসও।

Image result for tinsukia killing protest kolkata

শুক্রবার কলকাতায় ফিরে কালীপুজোর উদ্বোধন করতে গিয়ে গোটা ঘটনার নিন্দা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি বলেন, ‘‌তিনসুকিয়ায় অসহায় গরিব মানুষদের কেন খুন করা হল?‌ খুন, খুনই। খুনের সময় গরিব–‌বড়লোকের মধ্যে ভেদাভেদ থাকে না। ভীষণ খারাপ লাগছে। গুজরাট থেকে বিহারিদের খেদিয়ে দেওয়া হচ্ছে। অসম থেকে বাঙালিদের তাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। এসব কী হচ্ছে?‌’‌ তিনসুকিয়ায় গণহত্যার পর শুক্রবার ঘটনার প্রতিবাদে মমতা তাঁর টুইটের ছবি কালো করে দিয়েছেন। টুইটারে ডেরেক ও’‌ব্রায়েনের ছবিও কালো করা হয়েছে। এর আগে এই ঘটনার পর অসমে পাঁচজন নিরীহ বাঙালির মৃত্যুর প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে তৃণমূল। মুখে কালো কাপড় বেধে, প্ল্যাকার্ড, কালো পতাকা হাতে মিছিলে পা মেলান অভিষেক ব্যানার্জি, ফিরহাদ হাকিম, পার্থ চ্যাটার্জি, মদন মিত্রের মতো হেভিওয়েট নেতারা। শুক্রবার এইট বি থেকে হাজরা পর্যন্ত অংশ নেন তৃণমূল কর্মী–সমর্থকরা। অন্যদিকে, ঘটনার প্রতিবাদে অসমের প্রত্যেক মানু্ষ। সবাই অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি তুলছেন। তিনসুকিয়া, বরাক উপত্যকায় চলছে পুলিসি টহলদারি। বন্‌ধকে ঘিরে কোনওরকম অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিয়েছে পুলিস–প্রশাসন। তবে এই ঘটনা ঘিরে পুলিস এবং প্রশাসনের বিরুদ্ধেও ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ। অনেকেই নিরাপত্তাহীনতাতে ভুগছেন।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 21
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~