হংকং থেকেও বাজেয়াপ্ত নীরব মোদীর সম্পত্তি!

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 11
    Shares

পিএনবি জালিয়াতি মামলা প্রকাশ্যে আসার পরই নীরব মোদি দেশ ছেড়ে লন্ডনে গা–ঢাকা দিয়ে রয়েছে। ইন্টারপোল তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে। ইডি ইতিমধ্যেই নীরব মোদির বিরুদ্ধে চার্জশিট গঠন করেছে। চার্জশিটে বলা হয়েছে, তাঁর এবং তাঁর পরিবার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত ভুয়ো সংস্থার নাম করে নীরব মোদি ৬,৪০০ কোটি টাকার ব্যাঙ্ক প্রতারণা করেছেন।
সেই তদন্তের সূত্রেই হংকং থেকে নীরব মোদির কয়েকশো কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল ইডি। পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক বা পিএনবি জালিয়াতি কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত নীরব মোদির গয়না সহ মূল্যবান সামগ্রী মিলিয়ে প্রায় ২৫৫ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি। কোর্টের অর্ডার আগেই হংকংয়ে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। যাতে কোনও ধরনের আইনি জটিলতার মুখে ইডিকে পড়তে না হয়। পিএনবি মামলায় ইতিমধ্যেই নীরব মোদির ৪,৭৪৪ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।
ইডির পক্ষ থেকে জানা গিয়েছে, ‘‌তদন্ত চলাকালীন সম্পত্তির মূল্য, চালান দেওয়া মালের প্রাপক, জাহাজের বিভিন্ন তথ্য সবকিছুই খতিয়ে দেখা হয়। এখান থেকেই প্রমাণিত হয় যে নীরব মোদি ২৫৫ কোটির সম্পত্তি এই দেশে থেকে হংকংয়ে চালান করেছে।’‌ প্রসঙ্গত, হংকং থেকে সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার পর ইডি জানায়, অর্থ তছরূপ আইনের মোতাবেকই নীরব মোদির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হয়েছে। জানা গিয়েছে, এ দেশে হিরে ব্যবসায়ী নীরব মোদির নামে অভিযোগ দায়ের হওয়ার পরই দুবাইয়ের একটি সংস্থার ২৬টি জাহাজে করে গয়না সহ মূল্যবান সামগ্রী এ দেশ থেকে সরিয়ে হংকংয়ে নিয়ে যায় মোদি এবং সেখানে তাঁর নিজস্ব একটি সংস্থা র‌য়েছে। ইডির বাজেয়াপ্ত করা হিরে এবং হিরের গয়না সবই হংকংয়ে সরবরাহ করা হয়।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 11
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~