উত্তরপ্রদেশে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি চাইলেন রাজ বব্বর

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 38
    Shares

ওয়েব ডেস্কঃ  জল্পনা চলছিল বেশ কয়েকদিন ধরেই৷ বিধানসভা নির্বাচনে ভরাডুবি, কংগ্রেস সভাপতির আবেদন, সবকিছু মাথায় রেখেই পদত্যাগ করলেন রাজ বব্বর৷ উত্তরপ্রদেশে রাজ্য কংগ্রেস সভাপতির পদ ছাড়লেন প্রবীণ এই অভিনেতা৷ সম্ভবত তাঁর জায়গায় আসতে চলেছেন জিতিন প্রসাদ৷

রাজ্যের সাম্প্রতিক উপনির্বাচনে দলের পরাজয়ের পরই নৈতিক দায়িত্ব নিয়ে তিনি সরে যাচ্ছেন বলে সূত্রের খবর। আরও অনেক প্রদেশ সভাপতিই ধীরে ধীরে পদত্যাগ করবেন বলে জানা গিয়েছে৷ এআইসিসি অধিবেশনে রাহুল গান্ধী প্রবীণদের জায়গা ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ করেছিলেন৷ জায়গা ও সুযোগ দিতে বলেছিলেন অপেক্ষাকৃত নতুনদের৷ এরপরেই পদত্যাগের হিড়িক পড়ে৷ এই অধিবেশনেই রাহুলর ওপর দলের ওয়ার্কিং কমিটি পুনর্গঠনের ভার তুলে দেওয়া হয়েছে।

কংগ্রেসের সংবিধান অনুযায়ী ওয়ার্কিং কমিটির ২৫ জনের ১২ জনকে নির্বাচিত হতে হবে। বাকিদের মনোনয়ন করেন সভাপতি। গত কুড়ি বছর ওয়ার্কিং কমিটিতে কোনও নির্বাচন হয়নি। শেষ নির্বাচন হয়েছিল কলকাতা এআইসিসির অধিবেশনের সময়।

Image result for raj babbar

জানা গিয়েছিল, গুজরাটের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ভরতসিং সোলাঙ্কি পদত্যাগ করেছেন৷ পরে অবশ্য পদত্যাগের কথা অস্বীকার করেন৷ দলের শীর্ষ আধিকারিক মারফত খবর, সোমবার সোলাঙ্কি কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর সঙ্গে দেখা করেন৷ সেখানেই নাকি পদত্যাগের কথা আলোচনা হয়েছে৷ যদি এরপর সোলাঙ্কি পদত্যাগ করেন, তবে তা ব্যক্তিগত কিছু কারণের জন্য করবেন৷
এরআগে, সভাপতির ডাকে সাড়া দিয়ে প্রথমে পদত্যাগ করেন গোয়ার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ৭১ বছরের শান্তারাম নায়েক৷ এবার সরে দাঁড়াতে চলেছেন উত্তরপ্রদেশের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি রাজ বব্বর৷

Image result for raj babbar

তবে তাঁর পদত্যাগপত্র এখনও গৃহীত হয়নি৷ সংবাদমাধ্যমের সামনেও এবিষয়ে মুখ খোলেননি উত্তরপ্রদেশের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি৷ গোটা বিষয়টিই কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্বের ওপর ছেড়ে দিয়েছেন রাজ বব্বর৷ ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে নতুন করে সেজে উঠতে চাইছে কংগ্রেস৷ বদল আসতে চলেছে পরিকাঠামো ও অভ্যন্তরীণ নেতৃত্বে বলে জানিয়েছেন রাজ বব্বর৷
উত্তরপ্রদেশে এবার জাতপাত ভিত্তিক নির্বাচনী প্রস্তুতি সম্ভবত নিতে চলেছে কংগ্রেস৷ এবার তারা চাইছে প্রদেশ কংগ্রেসের দায়িত্ব নিন কোনও ব্রাক্ষ্মণ মুখ৷ জিতিন প্রসাদের পাশাপাশি, উঠে আসছে রাজেশ মিশ্র, ললিতেশপতি ত্রিপাঠীর নামও৷ তবে দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন জিতিন৷

ওড়িশার পুর নির্বাচনে দলের খারাপ ফলের জন্য ভোটের পরেই তাই পদ ছাড়তে চেয়েছিলেন বি কে হরিপ্রসাদ। উত্তরপ্রদেশে হারের পর দল সরিয়ে দেওয়ার আগেই তাই সরে যেতে চাইছেন রাজ বব্বর।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 38
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.