রামসেতু সত্যিই আজও আছে, এবং এটি মানুষের তৈরি ~ মেনে নিলো NASA

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 276
    Shares

বহুযুগ ধরে ভারতের বিভিন্ন রহস্যের মধ্যে অন্যতম অবশ্যই রামসেতু। “এটা কী আদৌ সত্যি? আদৌ কী এটার অস্তিত্ব আছে? এটা কী সত্যি মানুষের তৈরী নাকি প্রাকৃতিক ভাবে সৃষ্ট? অতীতে এই নিয়ে বিভিন্ন জল্পনা হয়েছে আর বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক সমীক্ষা হলেও কোন সিদ্ধান্তে আসা যায়নি।

কিন্তু অবশেষে ভারত ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে অবস্থিত এই পৌরানিক “রামসেতু”র অস্তিত্ব সম্পর্কে সঠিক প্রমাণ পাওয়া গেছে। আমেরিকান একটি টিভি স্টেশন এই সেতুটি যে প্রাকৃতিক নয় এবং হাতে তৈরী তার প্রমাণ দিয়েছে। অ্যাডামস্ ব্রিজ (adam’s bridge) নামে পরিচিত এই সেতুটি সম্পর্কে নাসার স্যাটেলাইট থেকে ছবি নেওয়া হয় যেখানে একটি ৩০ মাইল দীর্ঘ সেতুর অস্তিত্ব রয়েছে ভারত থেকে শ্রীলঙ্কা পর্যন্ত।

Image result for ramsetu

এখানে পাথরগুলির মধ্যে sandbar দেখা যাচ্ছে, যেগুলি কিছু কিছু জায়গায় জলের অল্প নিচে রয়েছে। জিওলজিস্ট এরিন আর্জিলান বলেছেন, বালি আস্তে আস্তে ভূমিতে পর্যবসিত হয়েছে। রামসেতুর একটি লাইমস্টোন পরীক্ষা করে দেখা গেছে তামিলনাড়ুর পামবান দ্বীপ ও শ্রীলঙ্কার মন্নর দ্বীপের মধ্যবর্তী সমুদ্র তলদেশ ওই বালির দ্বারা আবৃত। আসলে ৭০০০ বছরের পুরানো পাথর বসানো আছে এমন বালির ওপরে যা ৪০০০ বছরের পুরানো!!

২০০৭ সালে তৎকালীন UPA সরকার সুপ্রিম কোর্টে বলেছিল যে ভগবান রাম ও তাঁর অনুচরদের কোন ঐতিহাসিক অস্তিত্ব পাওয়া যায় নি। আর্কিওলজিকাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া রামসেতুর অস্তিত্ব খারিজ করে। সেই একই জায়গায় তৎকালীন তামিলনাড়ুর রুলিং পার্টি DMK সেতুসমুদ্রম শিপিং ক্যানাল নামে একটি প্রজেক্ট করতে আগ্রহী ছিল। বিভিন্ন হিন্দু সংস্থা এই প্রজেক্টয়ের বিরোধিতা করে এবং বলে এর ফলে রামসেতু ধ্বংস হয়ে যাবে।

Image result for ramsetu

শেষে সরকার ২০০৮ সালে তার বক্তব্য থেকে সরে এসে বলে যে ভগবান রাম নিজেই ওই সেতু ধ্বংস করেছিলেন। সিনিয়র অ্যাডভোকেট ফালি. এস. নারিম্যান যিনি সরকারের তরফে দাঁড়িয়েছিলেন, বলেন, নয়ের শতকের পদ্মপুরাণ ও কম্বনের রামায়ণ যদি সত্যিও হয়, তাহলে রাম নিজেই তা ধ্বংস করেছিলেন। সরকার এর তরফে বলেন কোর্টয়ে, যদি রামসেতু পুজনীয় স্থান হয়, তবে বর্তমানে তা আর পুজো করার অবস্থায় নেই।

বর্তমানে এই বছরে, আসাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রস্তাব অনুসারে Indian Council Of Historical Research (ICHR) জলের তলায় রামসেতুর অস্তিত্ব সম্পর্কিত যাবতীয় পরীক্ষা নিরীক্ষা করার কথা ঘোষণা করেছে। অন্য আরেকটি আর্কিওলজিকাল স্টাডির দ্বারাও জলের তলায় রামসেতুর অস্তিত্ব স্বীকার করে তার ওপর পরীক্ষা নিরীক্ষার কথা বলা হয়েছে।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 276
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.