রণক্ষেত্র শবরীমালা মন্দির চত্বর, আটক ৭০

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 32
    Shares

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ সমস্ত বয়সের মহিলারাই প্রবেশ করতে পারবেন আয়াপ্পা ভগবানের এই মন্দিরে। সেই মতো মহিলারা মন্দিরের দিকে অগ্রসর হতেই গোলমাল দেখা দিল শবরীমালা মন্দির চত্ত্বরে৷ ছড়িয়ে পড়ল সংঘর্ষ। বিক্ষোভ গড়ায় কেরলের তিরুঅনন্তপুরমে মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের বাসভবনের সামনে যেখানে বিক্ষোভ দেখায় দক্ষিণপন্থী শ্রমিক সংগঠনের কয়েকশো। দু’‌জায়গা মিলে আটক করা হয়েছে ৭০ জনকে।
রবিবার রাত থেকে মন্দির চত্বরে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এরই মাঝে প্রতিবাদ দিবসের ডাক দিয়েছে বিজেপি। আয়াপ্পার মন্দির শবরীমালা যাওয়ার পথে এক বিজেপি নেতাকে বাধা দেয় পুলিশ। পরে গ্রেফতার হন ওই নেতা। এরই প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বিজেপি কর্মীরা। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় শুরু হয় পথ অবরোধ। শবরীমালা থেকে ৯০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত থিরুভালা শহরে পথ অবরোধ শুরু করেন শ’দেড়েক বিজেপি কর্মী। প্রতিবাদ শুরু হতেই ধরপাকড় শুরু করেছে প্রশাসন। গ্রেফতার হয়েছেন বিজেপি নেতারা। প্রথমেই গ্রেফতার হয়েছেন রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক কে সুরেন্দ্রণ।
রবিবার সকাল থেকে বিক্ষোভ চলে কোচি, কোঝিকোড, মালাপ্পুরম, কোল্লাম, আলাপ্পুঝা, রান্নি, আরানমুলা, থোডুপুঝা এবং কালাডিতে।সকালের বিক্ষোভের জেরে পুলিস মন্দিরের মূল গর্ভগৃহে ভক্তদের প্রবেশ এবং মন্দির চত্বরে তাঁদের রাত কাটানোয় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল। মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি হয়। নিরাপত্তায় মোতায়েন করা হয় ১৫০০০ পুলিসকর্মী। পুলিস অফিসার প্রতীশ কুমার বলেন, তাঁরা কাউকে প্রার্থনা করা থেকে বাধা দিচ্ছেন না। কিন্তু হরিবাসর বা পুজো শেষে প্রার্থনা গানের পর মন্দির চত্বর থেকে ভক্তদের চলে যেতে বলা হলে বেশিরভাগই তা অমান্য করেন। এরপরই রাতের দিকে পুলিসের সঙ্গে খন্ডযুদ্ধ বাঁধে কয়েকশো ভক্তের।

ঋতুমতী মেয়েদের মন্দিরে প্রবেশাধিকার নিয়ে গত ২৮ সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া নির্দেশের প্রয়োগের জন্য আরও সময় চেয়ে শীর্ষ আদালতে আবেদন করেছে মন্দির কর্তৃপক্ষ। সেই আবেদনের প্রতিবাদেই বিজেপি কর্মী–সমর্থকরা তাঁরা মন্দির থেকে পুলিসি পাহারা এবং ১৪৪ ধারা প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। ভক্তদের পাশে দাঁড়িয়ে কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী কে জে আলফোন্স প্রশ্ন তোলেন, ‘‌জরুরি অবস্থার থেকেও খারাপ পরিস্থিতি এখানে। ভক্তদের উপরে উঠতে দেওয়া হচ্ছে না। কোনও কারণ ছাড়াই ১৪৪ ধারা জারি হয়েছে।’

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 32
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~