হাসিনার শেষ হাসি, বড়সড় জয় আওয়ামীর

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 26
    Shares

হাসিনাই হাসলেন৷ ১৯৭৩ সালের প্রথম নির্বাচনের পর নৌকার কাণ্ডারিদের এটাই সবচেয়ে বড় জয় বাংলাদেশে৷ অর্থাৎ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বড় জয় পেল আওয়ামী লীগ। নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের ঘোষণা বলছে, ২৯৮টি আসনের মধ্যে সর্বোচ্চ ২৫৯টি আসনে এককভাবে জয়লাভ করেছে হাসিনার দল৷
ভোট শেষ হওয়ার পর শুরু হয় গণনা। ঘণ্টা কয়েকের মধ্যেই ছবি মোটামুটি পরিষ্কার হয়ে যায়। প্রতিপক্ষের থেকে অনেকটাই এগিয়ে যায় শেখ হাসিনার আওয়ামী লিগ। ফলে টানা তৃতীয়বার বাংলাদেশে ক্ষমতায় এলেন তিনি। এই নিয়ে চারবার। তবে এই ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে নতুনভাবে নিরপেক্ষ সরকারের তত্ত্বাবধানে ভোটগ্রহণের দাবি জানিয়েছে বিরোধীরা।
গোপালগঞ্জ–৩ আসনে শেখ হাসিনা জয়ী হয়েছেন। আড়াই লক্ষেরও বেশি ভোটে জিতে গেছেন বাংলাদেশের একদিনের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তুজা। এগিয়ে রয়েছেন আওয়ামি লিগের সব মন্ত্রীই। পিরোজপুর–২ আসনে পৌনে ২ লাখ ভোটে জয়ী হয়েছেন বাংলাদেশের জলসম্পদমন্ত্রী আনওয়ার হোসেন মঞ্জু। একের পর এক আসনে আওয়ামী লিগের প্রার্থীদের বিপুল ব্যবধানে এগিয়ে যাওয়ার খবর মিলতেই ধানমন্ডি এবং বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লিগ কার্যালয়ের সামনে ভিড় জমতে শুরু করে। ঢাকা–সহ বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তে শুরু হয় বিজয়মিছিল।
রাতে ভোটবর্জনের কথা ঘোষণা করে বিএনপি। দলের মহাসচিব ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগির এবং ঐক্যফ্রন্টের নেতা কামাল হোসেন সাংবাদিক বৈঠক করে বলেন, ‘‌একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিষ্ঠুর প্রহসন। এ ধরনের নির্বাচন জাতির জন্য ক্ষতিকর। এই ক্ষতি দীর্ঘকালের। এই নির্বাচনে জাতির ক্ষতি হয়ে গেল। এর চেয়ে খারাপ ভোট আর হয় না। আমরা ভোট বর্জন করলাম। নির্বাচন কমিশনকে এটা আমরা জানাচ্ছি। পাশাপাশি এই ফলাফল বাতিল করে নিরপেক্ষ সরকারের তত্ত্বাবধানে নতুন করে ভোটের দাবি করছি।’‌

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 26
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~