রাজ্যে কর্মসংস্থানের ঘাটতি মেটাতে অভিনব উদ্যোগ মুখ্যমন্ত্রীর

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 9
    Shares

একদিনে ১১ হাজার ৭৭২ জনকে এক সঙ্গে সরকারি চাকরির নিয়োগপত্র দিলেন মুখ্যমন্ত্রী পবন কুমার চামলিং৷ দেশ স্বাধীন হওয়ার পর সবথেকে দীর্ঘ সময়ের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর পদে রয়েছেন চামলিং৷ শনিবার পালজোর স্টেডিয়ামে ‘রোজগার মেলা ২০১৯’ থেকে ১১ হাজার ৭৭২ জনকে সরকারি চাকরির নিয়োগপত্র দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন তিনি। উল্লেখ্য, সিকিমের ৩২টি বিধানসভা কেন্দ্রই এই প্রকল্পের আওতাভুক্ত৷ তবে প্রাথমিকভাবে ১১ হাজার ৭৭২ জনকে সরকারি নিয়োগপত্র দিয়েছে রাজ্য সরকার৷ খুব শীঘ্রই আরও বেশ কিছু সরকারি চাকরির ঘোষণা করবেন চামলিং বলে খবর৷ এটিই প্রথম নয়। এর আগেও প্রায় ২০ হাজার যুবককে অস্থায়ী চাকরির সুযোগ করে দিয়েছে চামলিং৷ কিন্তু এত সরকারি এক ধাক্কায় কীভাবে সম্ভব ? এমন প্রশ্ন ওঠাই স্বাভাবিক। চামলিং জানান, আপাতত সরকারি দপ্তরে অস্থায়ী কর্মী হিসাবে মিলবে নিয়োগপত্র৷ আগামী ৫ বছরের মধ্যে সবকিছু নিয়মিত করা হবে৷ আপাতত গ্রুপ–সি এবং গ্রুপ–ডি সহ–১২টি সরকারি দপ্তরে চাকরি দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া ২৬টি বিভিন্ন পদে নিয়োগ করা হচ্ছে। সেখানে নিরাপত্তারক্ষী, মালি, হাসপাতালে ওয়ার্ড অ্যাটেন্ডেন্ট, ভিলেজ পুলিস এবং গ্রামীণ গ্রন্থাগারিক পদে নিয়োগ করা হচ্ছে।
কিছুদিন আগেই সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী পবন কুমার চামলিং ঘোষণা করেন, যে পরিবারের একজন সদস্যও কোনও চাকরি করেন না, তাদের পরিবারের একজনকে সরকারি চাকরি দেবে রাজ্য সরকার৷ শুধু তাই নয় ভারতে যখন কৃষিঋণ মুকুব নিয়ে রাজনৈতিক বিতর্ক তুঙ্গে, তখন সিকিমে কৃষকদের জন্য কৃষিঋণ মুকুব করে স্বস্তির খবর দিয়েছেন চামলিং৷ প্রতি পরিবার পিছু একটি সরকারি চাকরি৷ দেশ জুড়ে কর্মসংস্থানের ঘাটতি কমাতেই এই অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার৷ যা এখন চর্চার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Facebook Comments


শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 9
    Shares

খবর ২৪ ঘন্টা

খবর এক নজরে…

No comments found