সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসির খোরাক রাহুল

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 29
    Shares

সম্প্রতি রাহুল গান্ধী রাজস্থানে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে কুম্ভা রাম আর্য লিফ্ট খাল প্রকল্পকে ভুলবশত কুম্ভকর্ণ লিফ্ট খাল প্রকল্প বলে ফেলেন। ফলে রাজস্থানে নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে হাসির খোরাক হতে হল কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে। আর এই মন্তব্যের জন্যই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজেপির কাছে হাসির খোরাক হয়ে দাঁড়িয়েছেন রাহুল। শুক্রবার রাজস্থানে বিধানসভা নির্বাচন হবে। আর তার আগেই কংগ্রেসকে অস্বস্তিতে ফেলল বিজেপি। বিজেপি মুখপাত্র সম্বিত পাত্র বলেন, ‘‌৫০ বছরের বুড়ো শিশু এখনও কিছুই শেখেনি। আসলে নিজেরাই তো কুম্ভকর্ণের মতো ৬০ বছর ধরে ঘুমিয়ে রয়েছে। তাই তাঁদের মুখ থেকে তো কুম্ভকর্ণই শোনা যাবে। দেশের সবাই মিলে এদের তুলে ধরে রাজনৈতিক ময়দান থেকে দূরে ছুঁড়ে ফেলে দিক। যাইহোক এই ব্যক্তি নাকি ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার যোগ্যতা দাবি করেন।’‌ রাজস্থানের বিজেপি মুখপাত্র গৌরব ভাটিয়া আবার কংগ্রেস সভাপতির এই বক্তব্য শোনার পর জানিয়েছেন যে, রাহুল প্রমাণ করলেন তিনি এবং তাঁর দল ‘‌রাবণ’‌কেই আদর্শ হিসাবে মেনে চলেন। তিনি টুইট করে রাহুলের উদ্দেশ্যে ‘‌গ্যাংস অফ ওয়াসিপুর’‌ সিনেমা থেকে লাইন নিয়ে বলেন, ‘‌তুমসে না হো পায়েগা (‌তোমার দ্বারা কিচ্ছু হবে না)‌’‌।

হিন্দু পুরাণ রামায়ণে দৈত্য রাজা রাবণের ভাই ছিলেন কুম্ভকর্ণ। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, রাহুল গান্ধী কুম্ভকর্ণ প্রকল্প বলার পরই কেউ তাঁকে তাঁর ভুলটা ধরিয়ে দেন এবং এরপরই নিজের ভুল শুধরে নিয়ে ঠিক কথাটি বলেন রাহুল। এই প্রচারের ভিডিও পোস্ট করে টুইটারে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূশ গোয়েল বলেন, ‘‌কুম্ভকর্ণ লিফ্ট প্রকল্প? কুম্ভকর্ণ ছ’‌মাসের জন্য ঘুমোতেন আর কংগ্রেস তো গত ৬০ বছর ধরে ঘুমিয়ে রয়েছেন। ‌

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 29
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~