চলে গেলেন “ব্ল্যাক হোল” এর জনক স্টিফেন হকিং… অচল শরীর ও সচল মস্তিষ্কের দৌড় শেষ।

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 54
    Shares

অচল শরীর ও সচল মস্তিষ্কের লড়াই থামিয়ে, পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে প্রয়াত হলেন বিশ্ববরেণ্য পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং। তাঁর পরিবারের তরফে এই খবর জানানো হয়েছে। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।যৌবন থেকেই স্নায়ুর জটিল রোগে আক্রান্ত ছিলেন হকিং। ফলে তাঁর প্রায় গোটা জীবনটাই কেটেছে হুইল চেয়ারে।

আধুনিক মহাকাশ পদার্থবিদ্যায় স্টিফেন হকিংয়ের অবদান অনস্বীকার্য। সৃষ্টির উত্স সম্পর্কে তাঁর গবেষণা ব্রহ্মাণ্ডের রহস্যভেদে সভ্যতাকে অনেকটা এগিয়ে দিয়েছেন বলে মত প্রকাশ করেন বিজ্ঞানীরা। শুধু গবেষণাই নয়, বিজ্ঞানের প্রসারে সব সময় তত্পর থাকতেন স্টিফেন হকিং।

হকিংই প্রথম  তত্ত্ব ব্ল্যাক হোল-এর ঘটনা সামনে এনে দেখান যে ব্ল্যাক হোল থেকে বিকিরিত হচ্ছে কণা প্রবাহ। এই বিকরণ এখন ‘হকিং বিকিরণ’ নামে পরিচিত। ২০১৪ সালে তাঁকে নিয়ে একটি চলচ্চিত্র তৈরি হয় যার নাম ‘থিওরি অব এভরিথিং’।

 

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 54
    Shares

Sponsored~

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.