উন্মাদ ~ সুচেতনা সেন

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

উন্মাদ ~


ধুলো ধরা অবসর
উন্মাদ মুচকি হাসি - গাঁটে ব্যথা
অবসাদ কুঁড়ে খায় শরীর সময়
স্থবির হতে - চারিদিকে ব্যস্ত স্থবিরতা -
খানিকটা রাতজাগা -বধির সব
মুক হয়ে থাকে - আরব্য রজনী গল্প বলে
উপকথা রূপকথা পাতা ওলটানো ;
শরীরে সুরের তারগুলো কেটে গেলে -
শরীর এখন কাঁটাঝাড়ে পূর্ণ অন্ধকার জঙ্গল ;
স্থবিরতা চেয়ে নিই - তবুও সেই নদীর চরে
কোনো ভোরে লাল সূর্য ওঠে - তার আলো নিয়ে
জলে কটা হাঁস খুব খেলে ; ডুব দেয় ভাসে ওঠে -
বুকের মাঝে ডুব দিয়ে দেখি অন্ধকার
দু একটা  হিজিবিজি আঁকর কাটা পাতা যেন
কোথায় ঘষা  কাঁচের জানালা আধখানা খোলা
একটু জোর করে পায়ে চাপ দিয়ে উঠি -তারপর চলি
দীর্ঘশ্বাস ; গোল চৌকো শঙ্কু প্রিজমের  দুপুর রাত  -
নদীময় হলে
জোনাকিগুলো উড়ে গেল
পিয়ালের মাথা থেকে -
নিঝুম নরম রাতের হাতে  - বুনো চাঁদ
একাদশীর আকাশে -বিরহী- বিয়োগী হয়ে
গান গায় -সেই সুরে
জ্যোৎস্নার পাতা সব
উড়ে উড়ে পড়ে চারিধারে
জানালা খোলা নদী জলে
কাগজের নৌকা হয়ে কেবল ভাসে ....

সুচেতনা সেন
Facebook Comments


শেয়ার করুন সকলের সাথে...

খবর ২৪ ঘন্টা

খবর এক নজরে…

No comments found

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.