“হায়দ্রাবাদী থ্রিলারে ” দিল্লিকে হেলায় হারালো  সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

স্পোর্টস ডেস্ক~ চেন্নাই-বেঙ্গালুরুর লো-স্কোরিং ম্যাচের পর এক রুদ্ধশ্বাস শনিবাসরীয় “রান-ফেস্ট” দেখার আশায় ছিল আইপিএলপ্রেমীরা। হায়দ্রাবাদের রাজীব গান্ধী ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে টসে জিতে যখন প্রথম ব্যাট করতে নামল দিল্লি তখন প্রথমেই গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের (২) রান আউট বেশ ব্যাকফুটে ঠেলে দিয়েছিল দিল্লিকে। এরপর পৃথ্বী শ , শ্রেয়স আইয়ার জুটিতে করেন ৮৬ রান। ১০ ওভারে দিল্লি পৌছে যায় ১উইকেট হারিয়ে ৯৫ রানে।ঠিক যান মনে হচ্ছিল এক বিশাল রানের স্কোর তাড়া করতে হবে হায়দ্রাবাদকে তখনই রশিদ খান ,সিদ্ধার্থ কলদের আটোসাটো বোলিং এবং পিচের মন্থর গতির জন্য শেষ ১০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৬৮ রানই তুলতে সমর্থ হয় দিল্লির ব্যাটসম্যানরা। ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৬৩ রান তোলে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস। পৃথ্বী শ ৬৫, আইয়ার ৪৪ এবং বিজয় শঙ্কর অপরাজিত ২৩ রান করেন। রশিদ খান ২ টি এবং সিদ্ধার্থ কল ১টি উইকেট নেন।
Image result for sunrisers hyderabad
জবাবে ব্যাট করতে নেমে ধাওয়ান,হেলসের জুটির শুরুটা করেন ভালই। ৯ ওভারে ৭৬ রান ওঠার পরে অমিত মিশ্রার ফ্লাইটেড স্পিনারে ভুল লাইনে খেলে ৩১ বল খেলে ৪৫ রান করে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়ানে ফিরে যান অ‍্যালেক্স হেলস। কয়েক ওভার পরেই  অমিত মিশ্রার “রন্জ ওয়ানে” স্লগ সুইপ মারতে গিয়ে ৩০ বলে ৩৩ রান করে বোল্ড হন ধাওয়ান। এরপর অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন এবং মনীশ পান্ডের জুটি হায়দ্রাবাদকে ধীরে ধীরে এগোতে থাকেন ১৬৪ রানের লক্ষের দিকে। তৃতীয় উইকেট জুটিতে ওঠে ৪৬ রান । ২১ রান করে লিয়াম প্লানকেটের বলে আউট হন মনীশ পান্ডে। ৫তথ ডাইনে নেমে ইউসুফ পাঠানের অপরাজিত ১২ বলে ২৭ রান এবং উইলিয়ামসনের অপরাজিত ৩১ রানের উপর ভর অরে সহজেই জয় ছিনিয়ে নেয় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। ৯ ম্যাচে ১৪  পয়েন্ট নিয়ে এইমূহুর্তে লিগটেবিলে শীর্ষে উঠে এল হায়দ্রাবাদ।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

Sponsored~

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.