বিবাহ বিচ্ছেদের সিদ্ধান্তে অনড় তেজপ্রতাপ

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 16
    Shares

বিবাহ–বিচ্ছেদের জন্য দিন কয়েক আগে আদালতের দ্বারস্থ হন লালুপ্রসাদ যাদবের বড় ছেলে তেজপ্রতাপ৷ সেটি প্রত্যাহার করে নেওয়ার জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে একাধিকবার বলা হয়েছে, কিন্তু তেজ সিদ্ধান্তে এখনও অনড়। মাত্র ছ’‌মাস আগে তেজের সঙ্গে বিয়ে হয় বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর নাতনি ঐশ্বর্য রাইয়ের। বিয়ের আসরে বসেছিল চাঁদের হাট।


বিয়ে সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে যাদব পরিবার এর আগেও সংবাদ শিরোনামে আসে। বছর খানেক আগে লালুর স্ত্রী রাবড়ি দেবী বলেছিলেন নিজের দুই ছেলের জন্য তিনি এমন মেয়েকেই পছন্দ করবেন যাঁরা শপিং মলে ঘুরে বেড়ান না। এমন মন্তব্যের জন্য প্রবল সমালোচনা হজম করতে হয়েছিল রাবড়িকে। এরই মাঝে চার হাত এক হয়। পাটনার অনুষ্ঠান বাড়িতে সেদিন হাজির হয়েছিলেন প্রায় দশ হাজার অতিথি। ছিলেন হাইপ্রোফাইল অতিথিরাও। ছেলের বিয়ের জন্য তিন দিনের জন্য জেল জীবন থেকে মুক্তিও পান লালু।
বিহারের প্রাক্তন মন্ত্রী তেজ প্রতাপ বলে দিয়েছেন বিবাহ বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত থেকে তিনি সরে আসছেন না৷ তবে পরিবার তাঁর পাশে নেই। জেলবন্দি বাবা থেকে শুরু করে মা এবং বাড়ির অন্য সদস্যরাও কেউ পাশে না থাকলে নিজের সিদ্ধান্তে অনড় থাকবেন বলেই জানিয়েছেন তেজ।
সম্প্রতি বিয়ে ভাঙতে চেয়ে পাটনার একটি আদালতে আবেদন করেন তেজ। তার পর থেকেই চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে এসেছে বিষয়টি। তাঁর ভাই তেজস্বী অবশ্য চান না পারিবারিক বিষয় নিয়ে সংবাদ মাধ্যমে চর্চা হোক। ভাই না চাইলেও দাদা তেজপ্রতাপ অবশ্য একাধিকবার জানিয়েছেন স্ত্রীয়ের সঙ্গে তাঁর মনের মিল হয় না। শুধু তাই নয়, তিনি নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে গিয়ে বিয়ে করেছেন বলেও জানান তিনি। তিনি বলেন আমি মা–বাকে বলেছিলাম যে এখন বিয়ে করব না। তেজ প্রতাপের দাবি, তাঁর পরিবার ঐশ্বর্যকে সমর্থন করছে এবং তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।

Facebook Comments


শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 16
    Shares

খবর ২৪ ঘন্টা

খবর এক নজরে…

No comments found