‘মোস্ট ফেভারড নেশনে’র তকমা ইসলামাবাদের থেকে কেড়ে নেওয়া হবে,ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে কড়া বার্তা শোনালেন অর্থমন্ত্রী অরুন জেটলি।

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 64
    Shares

পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় মদত রয়েছে পাকিস্তানের। বৃহস্পতিবারই স্পষ্ট করেছিল নয়াদিল্লি। শুক্রবার সকালে নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিশেষ বৈঠক শেষেও ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে কড়া বার্তা শোনালেন অর্থমন্ত্রী অরুন জেটলি। সন্ত্রাসে প্রত্যক্ষ ইন্ধন দেওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক দুনিয়ায় পাকিস্তানকে একঘরে করার উদ্যোগ ভারত কূটনৈতিরস্তরে নেবে বলে জানান অর্থমন্ত্রী।

১৯৯৬ সালে ভারত প্রতিবেশী পাকিস্তানকে বাণিজ্যক্ষেত্রে ‘মোস্ট ফেভারড নেশনে’র তকমা দেয়। ২০১৬ সালে উরি হামলার পর সেই তকমা থাকবে কিনা তা নিয়ে বিতর্ক হয়। তবে সেবার এই তকমা প্রত্যাহার করা হয়নি নয়াদিল্লির তরফে।

এদিন নিরাপত্তা সংক্রান্ত ক্যাবিনেট বৈঠকের পর অরুন জেটলি বলেন, পুলওয়ামার ঘটনার সঙ্গে যারা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত তারা কোনও মতেই রেহাই পাবে না। দোষীদের জন্য অপেক্ষা করছে কড়া পদক্ষেপ।

সন্ত্রাসে মদতদাতা পাকিস্তান। রাষ্ট্রসংঘ থেকে আন্তর্জাতিক নানা বৈঠকে একথা নানা সময়ে তুলে ধরেছে নয়াদিল্লি। ভারতের দাবিকে মান্যতা দিয়ে পাকিস্তানকে ২০০ মিলিয়ন ডলার অনুদানও আটকে দেয় ট্রাম্প প্রশাসন।

পাকিস্তানী জঙ্গি সংগঠন জৈশ-এ-মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজহারকে নিষিদ্ধ ঘোষণার জন্য রাষ্ট্রসংঘে দাবি জানায় নয়াদিল্লি। আমেরিকা সহ রাষ্ট্রসংঘের স্থায়ী সদস্যরা এতে সন্নতি জানালেও বেঁকে বসে চিন। মূলত তাদের বাধাতেই কার্যকর করা যায়নি ভারতের প্রস্তাব। তবে প্রশ্ন উঠেছিল সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে ইসলামাবাদের ভূমিকা নিয়ে। অন্যদিকে প্রতিবেশীকে নিয়ে ভারতের দাবি যে অমূলক নয় তাও স্পষ্ট হয় দুনিয়াজুড়ে।

Image result for pulwama

পুলওয়ামা হামলার পর ফের একবার পাকিস্তানকে একঘরে করতে মরিয়া নয়াদিল্লি। কূটনৈতিকস্তরে উদ্যোগ নিচ্ছে ভারত। এদিন বৈঠর শেষে অর্থমন্ত্রী জানান, পাকিস্তানের আসল স্বরূপ বিশ্বের সামনে আবারও দেখানোর সময় এসেছে। তাদের সঙ্গে আলোচনার অবকাশ আর নেই।

জঙ্গি হামলার পর কী পদক্ষেপ করবে ভারত? তা উঠে আসে আলোচনায়। দুমিনিট নীরবতা পালন করা হয় শহিদ জওয়ানদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে। জেটলি বলেন, পুলওয়ামার ঘটনা নিয়ে শনিবার সর্বদলীয় বৈঠকের ডাকা হতে পারে।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 64
    Shares

খবর ২৪ ঘন্টা

খবর এক নজরে…

No comments found