বেলজিয়ামের গুলি চালানোর ঘটনায় আততায়ীর সঙ্গে ইসলাম যোগ?

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 22
    Shares

ওয়েব ডেস্ক~  বেলজিয়ামের লিজে গুলি চালিয়ে দুই মহিলা সহ পুলিশ ও এক সাধারণ মানুষকে খুন করার ঘটনায় ইসলাম যোগ পাচ্ছে পুলিশ৷ আততায়ীদের সঙ্গে ইসলাম উগ্রপন্থীদের যোগ রয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ৷

জানা গেছে, অজ্ঞাতনামা ওই বন্দুকধারী একটি স্কুলে ঢুকে একজন মহিলা সাফাইকর্মীকে পণবন্দী করে৷ তখনই পুলিশ তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়৷ প্রাথমিক তদন্তে কিছু জানা না গেলেও, এটিকে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে উল্লেখ করছে পুলিশ। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, হামলার আগে ওই সন্ত্রাসী ‘আল্লাহু আকবর’ বলে চিৎকার করে ওঠে।

স্থানীয় মেয়রের অফিস থেকে দুই মহিলা পুলিশের মৃত্যুর খবরের সত্যতা স্বীকার করা হয়েছে৷ স্থানীয় সংবাদমাধ্যম আরটিবিএফের খবরে বলা হয়েছে, সোমবারই কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছিল ওই হামলাকারী। কারাগারেই তাকে হামলা চালানোর জন্য উৎসাহ দেওয়া হয়ে থাকতে পারে বলেও জানায় তারা।

Image result for belgium firing

কয়েক মিনিটের ব্যবধানে তিন জনকে গুলি করে খুন করে সে। পরে পুলিশের গুলিতে নিহত হয় হামলাকারীও। প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান অনুযায়ী, এ দিন শহরের সিটি সেন্টার এলাকায় একটি ক্যাফের সামনে পাহারারত পুলিশকর্মীদের উপরে আচমকা ছুরি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে আততায়ী। দুই পুলিশকর্মীকে এলোপাথাড়ি কোপানোর পরে তাঁদের বন্দুক ছিনতাই করে সে। সেই বন্দুক দিয়েই দুই মহিলা পুলিশ অফিসারকে গুলি করে মারে সে। এর পর সোজা হেঁটে পৌঁছয় পাশের পার্কিং লটে। সামনেই একটি গাড়ির ভিতরে বসেছিলেন বছর বাইশের এক যুবক। তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় হামলাকারী। ঘটনাস্থলেই ওই যুবকের মৃত্যু হয়।

সিটি সেন্টারের পাশেই লিওনি দে ওয়াহা স্কুল। এ বার সটান স্কুলের দিকেই হাঁটা দেয় হামলাকারী। একের পর এক গুলির আওয়াজে তত ক্ষণে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। প্রাথমিক ধাক্কাটা সামলে নিয়ে পিছু নেয় পুলিশও। পুলিশের গুলিতে শেষ পর্যন্ত হামলাকারীর মৃত্যু হয়েছে।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 22
    Shares

Sponsored~