বড় ধাক্কা বিজেপির, ইস্তফা এনডিএ মন্ত্রীর

শেয়ার করুন সকলের সাথে...

কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিলেন এনডিএ শরিক তথা রাষ্ট্রীয় লোক সমতা পার্টি বা আরএলএসপি সুপ্রিমো উপেন্দ্র কুশওয়াহা। ফলে ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের আগে ধাক্কা খেল বিজেপি। সম্প্রতি অমিত শাহ–এর সঙ্গে বৈঠকেও রফাসূত্র না মেলায় আগেই এনডিএ ছাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন কুশওয়াহা। এবার ছেড়েই দিলেন জোট। লোকসভা নির্বাচনের আগে এই ঘটনা বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের উপর অনেকটাই চাপ বাড়াবে, মনে করছে রাজনৈতিক মহল। ‌‌
লোকসভা ভোটের আসন বণ্টন নিয়ে বেশ কিছু দিন ধরেই বিজেপির সঙ্গে মতান্তর চলছিল বিহারের অনগ্রসর শ্রেণির অন্যতম নেতা উপেন্দ্রর। কয়েক সপ্তাহ আগে বিহারের মুখমন্ত্রী তথা এনডিএ শরিক নীতীশ কুমার আসন ভাগাভাগি নিয়ে তাঁকে অপমানজনক কথা বলেছিলেন বলে প্রদেশ বিজেপির সভাপতি তথা বিহারের উপ মুখ্যমন্ত্রীকে অভিযোগ করেছিলেন কুশওয়াহা। কিন্তু তিনি নীতীশকে কিছু বলেননি, তাই বিজেপির উপর ক্ষুব্ধ হন কুশওয়াহা।
সোমবার পদত্যাগপত্র পাঠানোর পর দুপুরে সাংবাদিক সম্মেলনে উপেন্দ্র বলেন, ‘‌প্রায় পাঁচ বছর আগে অনেক আশা নিয়ে আমি এনডিএ–তে যোগ দিয়েছিলাম। ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটের সময় বিহার এবং সারা দেশের মানুষদের কাছে অনেক আশার কথা বলেছিলেন মোদিজি। বিহারবাসী তাঁর উপর ভরসা করেছিলেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী হলেও বিহারবাসীর আশা পূরণ করতে পারেননি মোদিজি। আমিও কেন্দ্রীয়মন্ত্রী হলাম। বিহারের জন্য বিশেষ প্যাকেজের দাবি জানিয়েছিলাম। কিন্তু তা পূরণ হয়নি। বিহারের জন্য কিছু করেনি কেন্দ্র। অচ্ছে দিন আসেনি বিহারে। জনগণনার পিছনে কয়েক কোটি টাকা খরচ করা হয়েছিল। কিন্তু কাজ কিছুই হয়নি। বিহার এখনও আগের জায়গাতেই আছে। বিহারের শিক্ষা এবং স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রায় অস্তিত্বহীন হয়ে পড়েছে।’‌ উপেন্দ্রর আরও অভিযোগ, অনগ্রসর শ্রেণির জন্য যে দাবি জানিয়েছিলেন তিনি, তাতেও কর্ণপাত করেনি কেন্দ্র।

Facebook Comments


শেয়ার করুন সকলের সাথে...

খবর ২৪ ঘন্টা

খবর এক নজরে…

No comments found