অন্ধ্রের পর বাংলা, অনুমতি ছাড়া তদন্ত করতে পারবে না সিবিআই

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 34
    Shares

কড়া সিদ্ধান্ত রাজ্যের৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাকে এই রাজ্যেও আর ‘ফ্রি পাস’ দেওয়া হবে না৷ কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন বা সিবিআইয়ের আইন অনুযায়ী, রাজধানী দিল্লির ওপর সংস্থাটির সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকলেও অন্য কোনও রাজ্যে প্রবেশের ক্ষেত্রে সেই রাজ্যের সরকারের অনুমতি প্রয়োজন।
১৯৮৯ সাল থেকেই পশ্চিমবঙ্গ সরকার সিবিআইকে এই রাজ্যে প্রবেশের এবং তল্লাশি চালানোর অনুমতি দিয়ে দিয়েছিল। তবে সেই অনুমতি তুলে নেওয়া হল বলে জানা গিয়েছে৷
বাতিল করে দেওয়া হল সিবিআইকে দেওয়া জেনারেল কনসেন্টও। এর আগে ১৯৮৯ সালে জেনারেল কনসেন্ট দিয়ে রাজ্য সরকার জানিয়েছিল, কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির রাজ্যে তদন্ত করার আগে আগাম অনুমতির প্রয়োজন হবে না। তদন্তের পর সরকারকে জানালেই হবে। কিন্তু নয়া বিবৃতিতে এখন থেকে তা আর হবে না। আগাম জানাতে হবে।
এরআগে, সিবিআই তাঁর রাজ্যে অনুমতি ছাড়া হানা দিতে পারবে না বা তল্লাশি চালাতে পারবে না বলে ঘোষণা করেছিলেন চন্দ্রবাবু নায়ডু। তার কয়েকঘন্টার মধ্যেই একই ঘোষণা করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
রাজ্য সরকারের অভিযোগ, সিবিআই এক্তিয়ার বহির্ভূত কাজ করছে। নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি জাগো বাংলা অনুষ্ঠানে টাউন হল কত টাকায় ভাড়া দেওয়া হয়েছিল, কত খরচ হয়েছিল, তা জানতে চেয়েছিল সিবিআই। জানানোর কথা না থাকলেও সিবিআই–কে সব জানানো হয়। আধিকারিকদের মতে, রাজ্যে এই ধরনের বহু অনুষ্ঠানই হয়। এ সবই রাজ্যের এক্তিয়ারের মধ্যে পড়ে। সিবিআই এক্তিয়ার বহির্ভূত কাজ করছে। ইচ্ছাকৃতভাবে অফিসারদের হয়রানি করা হচ্ছে। ক্ষমতার অপব্যবহার করছে। আর যাতে না করতে পারে সেজন্যই ১৯৮৯ সালে দেওয়া জেনারেল কনসেন্ট প্রত্যাহার করে নেওয়া হল।
এই বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চন্দ্রবাবু নায়ডুকে সমর্থন জানিয়ে বলেন, “সিবিআইকে রাজ্যে প্রবেশ করার অনুমতির ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করে একদম ঠিক কাজ করেছেন চন্দ্রবাবু নায়ডু। বিজেপি ‘নোট চেঞ্জার’ হতে পারে, তবে ওরা ‘গেম চেঞ্জার’ নয়”, বলেন তিনি।
এদিকে, কেন্দ্রের ক্ষমতাসীন এনডিএ সরকারের সঙ্গে অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু সঙ্ঘাত আরও নতুন মাত্রা পেয়েছে। অন্ধ্রে আগে থেকে অনুমতি না–নিয়ে সিবিআই কোনও তদন্ত বা তল্লাশি করতে পারবে না। কারণ, চন্দ্রবাবু রাজ্যের তরফে সিবিআইকে দেওয়া ‘জেনারেল কনসেন্ট’ বা সামগ্রিক অনুমতি প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 34
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~