ফিলিপিন্সের দিকে এগোচ্ছে সুপার টাইফুন মাংখুট….

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 39
    Shares

ঘণ্টায় ২০৫ কিলোমিটার বেগে আছড়ে পড়তে চলেছে সুপার টাইফুন মাংখুট। হংকং অবজার্ভেটরির পূর্বাভাস, সোমবার মাংখুট চীনের গুয়াংডং, গুয়াংশি এবং হাইনান প্রদেশের দিকে এগোতে পারে। তবে তখন তার শক্তি কমে হাওয়ার গতিবেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১৭৫ কিলোমিটার। ইতিমধ্যেই গুয়াংডং–এ ৩৭৭৭টি ত্রাণশিবির খোলা হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা এবং পর্যটক সহ লক্ষাধিক মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরানো হয়েছে। ৩৬০০০টি মৎস্যজীবীদের নৌকাকে ফেরত আসতে নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। গুয়াংডং এবং হাইনানের মধ্যে সব নৌ পরিষেবা এবং ঝাংজিয়াং–মাওমিং–এর মধ্যে ট্রেন পরিষেবা স্থগিত। ফুজিয়ান প্রদেশের সব সমুদ্রতীর খালি করে দেওয়া হয়েছে।

তবে তার আগে, স্থানীয় সময় শনিবার ভোরে শক্তি আরও বাড়িয়ে ঘণ্টায় ২৫৫ কিলোমিটার বেগে তা আছড়ে পড়তে পারে ফিলিপিন্সের উত্তরপূর্ব কাগায়ান প্রদেশের উপর। সুপার টাইফুনের জেরে প্রায় ৯০০ কিলোমিটার চওড়া বর্ষার মেঘ ছড়িয়েছে ফিলিপিন্সের আকাশে। মাখুট ভূমিতে আছড়ে পড়লেই হড়পা বান, ভারী বৃষ্টি এবং ধস নামতে পারে লুঝোন দ্বীপের ২৫ প্রদেশজুড়ে। এমনটাই জানিয়েছে হাওয়াইয়ের জয়েন্ট টাইফুন ওয়ার্নিং সেন্টার। ফলে সমুদ্র এবং বিমানযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ফিলিপিন্স প্রশাসন। ফিলিপিন্সের প্রেসিডেন্ট রডরিগো দুতার্তে মিসাইল উৎক্ষেপন পরিদর্শন বাতিল করে শুক্রবার মন্ত্রিসভার সদস্য এবং প্রশাসনিক আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করেন। সেনাবাহিনী এবং বিপর্যয় মোবাকিলা দলের সঙ্গে মন্ত্রিসভার সদস্যদেরও বিপর্যয় মোকাবিলার জন্য তৈরি থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট। কাগায়ান প্রদেশে ৪০,২০,০০০ বাসিন্দাকেই সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। কাগায়ানের গভর্নর ম্যানুয়েল মাম্বা বলেছেন, ইতিমধ্যেই উপকূলবর্তী এবং নিচু অঞ্চল থেকে ১০,২০,০০০ বাসিন্দাকে নিরাপদ স্থানে সরানো হয়েছে। সব স্কুল, কলেজ বন্ধ। কাগায়ানের উত্তরাংশেই ধসের আশঙ্কা বেশি থাকায় ওই এলাকার বাসিন্দাদের সর্বাগ্রে সরানো হচ্ছে। টাইফুনের পথে প্রায় ৪৮০০০ বাড়ি পড়ছে কাগায়ানে। সেগুলি প্রায় সব কটিই ধূলিসাৎ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। কারণ, সম্প্রতি আমেরিকার গুয়াম দ্বীপের উপর দিয়ে বয়ে গিয়েছিল সুপার টাইফুন মাংখুট। মার্কিন প্রশাসন জানিয়েছে, ঝড়ের দাপটে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন এবং গাছ উপড়ে যাওয়া তো আছেই, গুয়ামের প্রায় ৮০ শতাংশ বাড়ি বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছিল।

Facebook Comments

শেয়ার করুন সকলের সাথে...
  • 39
    Shares

খবর এক নজরে…

No comments found

Sponsored~